বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক অনুমোদিত (নিবন্ধন নং -২৪)

বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক অনুমোদিত (নিবন্ধন নং -২৪)

Homeবিনোদনশিশু শিল্পী থেকে গান গাওয়া, গানের প্রতি ভালবাসা থেকেই আজ গীতিকার.... সৈয়দা...

শিশু শিল্পী থেকে গান গাওয়া, গানের প্রতি ভালবাসা থেকেই আজ গীতিকার…. সৈয়দা হেমা।

বিনোদন ডেস্ক :

সঙ্গীতপ্রিয় হেমা ছোটবেলা থেকেই গানের প্রতি প্রবল আকর্ষণ ও ভালোবাসা। রেডিওতে ক্যাসেটে সিডিতে টিভি চ্যানেলে বাংলা গানের প্রখ্যাত শিল্পীদের কণ্ঠে গাওয়া গানে বিমোহিত হেমাকে। কিশোরীকণ্ঠে গুন গুন করে সেইসব গান গাইতো। স্কুলের অনুষ্ঠানে শ্রুতাবন্ধুদের অনুরুধে গান গাওয়া ছাড়াও প্রতিযোগিতায় পুরস্কার প্রাপ্তদের তালিকার প্রথমসারিতে থাকতো হেমার নাম। বন্ধুদের আড্ডার মধ্যমনি ছিলেন শিশু শিল্পী হেমা, ভালো মনের গুণী একজন মানুষ সবাই কে মাতিয়ে উল্লাসে রাখতেন সেই সময় থেকেই। ছোট বড় সবার পছন্দের ছিলেন হেমা, এখনো আছেন তবে হেমার মাঝে এতো গুণ হয়তো সবার জানা ছিলোনা বিগত কয়েক বছর যাবৎ ধীরে ধীরে সৈয়দা হেমার প্রতিভার প্রকাশ পেলো।

অগ্রজ সৈয়দ দুলাল একজন খ্যাতিমান গীতিকার হেমার বড় ভাই । তারই প্রভাব পড়ে হেমার ওপর। গান গাওয়ার পাশাপাশি নিজেও গান, কবিতা ও গল্প লিখতে শুরু করেন সৈয়দা হেমা। ছুটো বেলা থেকেই লিখতে পারেন নিজে নিজে গাইতেন তখনো খাতায় লিখে করে রাখতেন না । তবে নিজের লেখা গান নিজে নিজে সুর করে বন্ধুদের আড্ডায় গাওয়ার উদ্দেশ্যে এভাবেই প্রতিভার বিকাশ ঘটে, তবে হাইডেই হেমা থাকতে চাইতেন তাই এতো বেশি প্রকাশ করতেন না তারওপর পরিবারের সবচেয়ে ছোট হেমা । প্রফেশনালি গান না গাইলে ও আজ প্রফেশনাল শিল্পিদের কণ্ঠে সৈয়দা হেমার কথা ও সুরে গান আজ সবার পরিচিত। ছুটবেলায় স্কুল জীবনে হেমা গান গেয়েছেন চমৎকার কণ্ঠ তার। তারওপর লিখতে পছন্দ করতেন । কোনো শিল্পীর কণ্ঠে এগুলো ওঠে আসুক এধরনের অভিপ্রায় তার ছিলো না। শখের বশে ডায়েরীর পাতা ভরে ওঠেছে ততদিনে।

বইও বের করে ফেলেছেন যদিও দু’ এক কপির বেশি নয়, নিজের কাছে রাখার জন্য কিছু কথা কিছু গান নামে । গানের সাথে সাথে সুরও আয়ত্ত করেছেন বেশ। বন্ধুদের মুখভর্তি প্রশংসায় অনুপ্রাণীত হেমা পছন্দের শিল্পীও খুঁজেন মনে মনে। পেয়েও গেলেন কাঙ্খিত শিল্পীদের সন্ধান সখ ছিলো নিজে না গাইলেও নিজের লেখা গান গাওয়াবেন বড় কোন শিল্পীকে দিয়ে একদিন । এভাবেই প্রিয় শিল্পী পিয়াল হাসানের গাওয়া ‘আজো কাঁদি আমি ‘ শিরোনাম ২০০৭- শেষের দিকে একদম প্রথম এই একক এলবাম হেমার কথা ও সুরে আসে এবং তারপরই একটি নয় দু’ দুটি মিক্সড অ্যালবাম ভালোবাসার মিলন নামে আতিক হাসান ও পলাশ নবীন সৈয়দা হেমার কথা ও সুরে আসে ২০০৯ এবং দেশের খ্যাতিমান শিল্পী সুবীর নন্দী, আঁখি আলমগীর, প্রতীক হাসান, সুমী শবনম, আগুন, সুমন রাহাত ও বাশার নামে শিল্পীদের কণ্ঠে ২০১১ -এ ‘আমি একজন কে ভালোবাসি এলবাম। প্রবাসে থেকেও বাংলা গানও বাংলার সংকৃতিকে ভালোবাসা দিয়ে আগলিয়ে রাখেছেন তিনি। প্রবাসী জীবনে সোশ্যাল মিডিয়ায় মধ্যেমে দেশের খবর রাখেন দেশ কে মিস করেন প্রতিনিয়ত।

এক সাক্ষাৎকারে সৈয়দা হেমা বলেন, সংসারের প্রয়োজনে অনেক কিছু ছাড়লেও গান আমাকে ছাড়েনি। অনেকদিন গ্যাপের পর নতুন স্টাইলে ২০১৬ তে প্রথম মিউজিক ভিডিও স্বপ্নীল হাওয়া । তারপরে ‘আবার চার বছর গ্যাপের পর অপনজন’ নামে পিয়াল হাসান ও বেলি আফরোজ ডুয়েট গানের মিউজিক ভিডিও। এর পর ২০২২ তে নিজের সখে নিজের পছন্দের একটি লেখা ও সুর করা জনপ্রিয় শিল্পী প্রতীক হাসান ও নদী তোমার মাঝে হারিয়েছি প্রিয়’ গানটির প্রশংসায় সবাই পঞ্চমুখ হয় । নিজের লেখা ও সুরে পরিবেশিত গানের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা অনেক দিন পর শুনে শখটা বেড়ে যায় আরো। তারপর ‘একটা পরে একটা গান লিখতে শুরু করি আর মা গান হইলো আসবেনা ফিরে মা তুমি । নিজের লেখা নিজের সুর করা মাকে নিয়ে বিশেষ এই গান শিল্পি নদীর কণ্ঠে এই তো ভালোবাসা বলে নাকি। নদী ও হৃদয় হাসিন এর কথা দিলাম’, শিল্পী : নদী ও বেলাল খান সৈয়দা হেমার কথায় , টিভি নাটকে ‘এক পলকে’, হৃদয় হাসিনের কণ্ঠে সেটা গেলো , সৈয়দা হেমার লেখা সিলেটের শিল্পী তসিবা গেয়েছেন ‘সুন্দর ফুরি’, এস ডি রুবেল গেয়েছেন হেমার লেখা ‘কী যে সুন্দর লাগছে তোমায়’ এবং সানিয়া রমা গেয়েছেন দু’টি ভক্তিমূলক গান, সারি সারি বান্দিয়া ও আল্লাহ তুমি রহীম রহমান ।
হেমা বলেন,শখের বসেই
সত্যি বলতে কী আমি নিজেই অবাক! কখন এতো গান আমার হাত দিয়ে বেরিয়ে এলো। হোমার লিখা গান চিত্র নায়িকা শাবনুরের বোন ঝুমুরও গেয়েছেন । সামনে আরো কিছু নতুন গান মুক্তির অপেক্ষায় আছে। হেমার আছে নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল।

পুর্ণ নাম সৈয়দা খাদিজা বেগম হেমা। সৈয়দা হেমা নামেই তিনি বেড়ে ওঠেছেন। স্বামী সন্তান নিয়ে বর্তমানে যুক্তরাজ্যে বসবাস করছেন। জন্ম সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুরে। বাবা সৈয়দ হাবিবুর রহমান, মা জামিরুন নেসা। পাঁচ ভাইবোনের মাঝে হেমা পঞ্চম অর্থাৎ সবার আদরের ছোটবোন । বড়ভাই প্রখ্যাত গীতিকবি সৈয়দ দুলাল। দ্বিতীয় ভাই সৈয়দ হিলাল সাইফ একজন তুখোড় ছড়াকার। অপর দুই বোন শ্যামা ও সীমা। তারা সবাই এখন যুক্তরাজ্যের বাসিন্দা। এ-ই গুনী গীতিকার বলেন সংসার জীবনে স্বামী সন্তান নিয়ে যতোটুকু সময় পাই তার হয়তোবা পর্যাপ্ত নয়, সময় সুযোগ পেলেন ভবিষ্যৎ প্রজন্মর জন্য কিছু গান রেখে যেতে চাই।

- Advertisement -spot_img
এই রকম আরো পোস্ট
- Advertisment -spot_img

সর্বশেষ