বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক অনুমোদিত (নিবন্ধন নং -২৪)

বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক অনুমোদিত (নিবন্ধন নং -২৪)

HomeTop-2ঘুড্ডি ছবির নির্মাতা সৈয়দ সালাহউদ্দিন জাকী আর নেই

ঘুড্ডি ছবির নির্মাতা সৈয়দ সালাহউদ্দিন জাকী আর নেই

ঘুড্ডি ছবির নির্মাতা সৈয়দ সালাহউদ্দিন জাকী আর নেই। গতকাল সোমবার দিবাগত রাত ১১টা ৫৩ মিনিটে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

তাঁর মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন নাট্যজন নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু।

মৃত্যুকালে সৈয়দ সালাহউদ্দিন জাকীর বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। ১৯৪৬ সালের ২৬ আগস্ট তিনি জন্মগ্রহণ করেন। সৈয়দ সালাউদ্দিন জাকীর এক ছেলে ও এক মেয়ে। তাঁরা দুজনই কানাডায় থাকেন। জানা গেছে, সন্তানরা দেশে ফেরার পর দাফনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

সোমবার রাত ১০টার পর হঠাৎ শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে সালাহউদ্দিন জাকীর। এরপর দ্রুত রাজধানীর গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে নেওয়া হয়। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

সৈয়দ সালাহউদ্দীন জাকীর অন্যতম কৃতিত্ব ১৯৮০ সালের চলচ্চিত্র ‘ঘুড্ডি’। এই ছবির কাহিনি লিখে শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচয়িতা বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন। ২০২১ সালে একুশে পদক লাভ করেন তিনি। বাংলাদেশ ফিল্ম সোসাইটি আন্দোলনের অন্যতম ব্যক্তিত্ব ছিলেন তিনি।

সম্প্রতি তিনি ইমপ্রেস টেলিফিল্মের প্রযোজনায় দুটি চলচ্চিত্রের কাজ শেষ করেন। একটি’ অপরাজেয় একা’ অন্যটি’ ক্রান্তিকাল’। ‘অপরাজেয় একা’ সেই নামের ছবিটি মুক্তির অপেক্ষায় আছে।

ঘুড্ডি বাংলা ছবির ইতিহাসে একটি মাইলফলক। সিনেমার প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেন রাইসুল ইসলাম আসাদ ও সুবর্ণা মুস্তাফা। এই সিনেমায় কাওসার আহমেদ চৌধুরীর লেখা ও হ্যাপি আখান্দের গাওয়া ‘আবার এল যে সন্ধ্যা’ গানটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিল।

এরপর ‘লাল বেনারসি’, ‘আয়না বিবির পালা’সহ বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন। নব্বই দশকের শেষ দিকে বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক হিসেবেও কর্মরত ছিলেন তিনি।

- Advertisement -spot_img
এই রকম আরো পোস্ট
- Advertisment -spot_img

সর্বশেষ