বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২, ২০২৩

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত

spot_img
Homeবিনোদনমূলধারার চলচ্চিত্র বাঁচানোর চাবি এখনও শাকিবের হাতে: কাজী হায়াৎ

মূলধারার চলচ্চিত্র বাঁচানোর চাবি এখনও শাকিবের হাতে: কাজী হায়াৎ

‘অনুদানের জন্য সরকার প্রতিবছর প্রচুর টাকা দিচ্ছে। ২০-২৫ কোটি টাকা দিলে এর অর্ধেক এফডিসিতে আনার চেষ্টা করবো। সেই টাকা দিয়ে মূলধারার নির্মাতা বাণিজ্যিক সিনেমা তৈরি করবে। এই টাকা দিয়ে ব্যবসা হলে আবার ফেরত দেবে। ইতিহাস কিংবা ভাষা আনন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধসহ ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট নিয়ে ছবি বানানোর জন্য বাকি টাকা যেন সরকার ব্যয় করে।’ কথাগুলো বলেন পরিচালক সমিতির সদ্য নির্বাচিত সভাপতি ও প্রখ্যাত নির্মাতা কাজী হায়াৎ।

প্রতি বছর এভাবে যদি ১০টি ছবিতে অনুদান পাওয়া যায় তাহলে ১০ বছর মূলধারার ১০০ পরিচালক ছবি বানাতে পারবে বলে মনে করেন এই নির্মাতা।

এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, আমি বিষয়টি নিয়ে সরকারের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপ করে পাশ করানোর চেষ্টা করবো।’ এদিকে নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিতে পরিচালকদের আবাসন ব্যবস্থার কথা বলেছিলেন কাজী হায়াৎ।

বিষয়টি নিয়ে তার কর্মপরিকল্পনার কথা জানতে চাই তিনি বলেন, ‘আমি গণপূর্ত মন্ত্রী ও সচিবের কাছে বলবো, তারা যেন ১০-১২ একর জমি আমাদের দিয়ে ঘর তৈরি করে দেন। কোনো ইন্টারেস্ট না নিয়ে যেদিন ফ্ল্যাটের মূল্যটা ভাড়ার টাকায় শেষ হবে সেদিন আমাদের লিখে দিলেই হবে। আমার মনে হয়, এমন সুন্দর প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রী, পূর্তমন্ত্রী ও সচিব মেনে নেবেন।’

এদিকে সদ্য সমাপ্ত বছরে ৫১টি সিনেমা মুক্তি পেলেও হাতেগোনা কয়েকটি চলচ্চিত্র সফলতা মুখ দেখেছে। সেই তালিকায় নেই তথাকথিত বাণিজ্যিক ঘরানার কোনো সিনেমা। অনেকেই বলছেন, হিরোইজমের যুগ শেষ। এখন গল্প-নির্মাণ ভালো না হলে দর্শক সেই সিনেমা দেখবে না। তবে বিষয়টিতে ভিন্নমত পোষণ করেন কাজী হায়াৎ। তার মতে, স্টারডমেরও মূল্য রয়েছে।

কাজী হায়াৎ বলেন, ‘সিনেমার এই বাজারে একমাত্র শাকিব খানের ছবি মুক্তি পেলে কমপক্ষে ১০০ বন্ধ হল খোলে। ঈদে তার ছবি এলে মুক্তির আগে কোটি টাকা উঠে আসে।’

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও ইউটিউবে স্বপন চৌধুরী নামে আরেক নির্মাতার সঙ্গে এফডিসির প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতির অফিসে বসে আলাপকালে কাজী হায়াৎ এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘কারও নাম উল্লেখ করতে চাই না, তবে এটাই সত্যি যে অন্য নায়করা যেখানে ১০, শাকিব সেখানে একাই ১০০! শাকিবকে নিয়ে ছবি করলে সিনেমা হলের বাইরে ইউটিউব চ্যানেল, টিভি রাইটস এবং ওটিটি সবকিছু মিলিয়ে ১ কোটি টাকার বেশি বিক্রি হবে।’

দীর্ঘদিন ধরে শাকিবকে দেখে কাজী হায়াৎ তার অভিজ্ঞতার আলোকে দৃঢ়ভাবে বলেন, ‘মূলধারার চলচ্চিত্র বাঁচানোর চাবি এখনও শাকিবের হাতে। ঈদ ছাড়াও অন্যান্য সময় শাকিবের ছবি মুক্তি পেলে প্রযোজক নিশ্চিতে ৫০ লাখ টাকা থেকে ৭৫ লাখ টাকা অগ্রিম পায়। যা আর কারও ক্ষেত্রে হয় না।’ উল্লেখ্য, গত বিজয় দিবসে মুক্তি পায় কাজী হায়াতের সর্বশেষ ছবি ‘জয় বাংলা’।

ছবিটির মূল ভূমিকায় দেখা গেছে বাপ্পী ও জাহারা মিতুকে। সরকারি অনুদানে মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপট ছবিটি নির্মাণ করেন কাজী হায়াৎ।

ournews24.com এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের পছন্দ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_imgspot_img

সর্বশেষ খবর

- Advertisment -spot_imgspot_img