শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত

spot_img
Homeরাজনীতিআবারও রংপুর সিটির নগর পিতা জাপার মেয়র মোস্তফা

আবারও রংপুর সিটির নগর পিতা জাপার মেয়র মোস্তফা

রংপুর সিটি করর্পোরেশনের তৃতীয় মেয়াদের নির্বাচনে আবারও মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোস্তফাফিজার রহমান মোস্তফা। লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে তিনি তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে ৯৬ হাজার ৯০৭ ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হলেন। ফলাফল ঘোষণার পর তিনি আল্লাহর প্রশংসা করে নগরবাসীকে ফলাফল উৎসর্গ করেছেন।

মঙ্গলবার রাত ১২ টায় রংপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে এই ফলাফল ঘোষণা করেন রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবদুল বাতেন। তিনি বেসরকারী ভাবে মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফাকে মেয়র হিসেবে ঘোষণা দেন। তার প্রাপ্ত ভোট ১ লাখ ৪৬ হাজার ৭৯৮। অন্যদিকে নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া (নৌকা) পেয়েছেন ২২ হাজার ২৩৯ ভোট। ভোটের ফলাফলে তিনি ৪র্থ হয়েছেন।

তবে সবাইকে তাক লাগিয়ে মোস্তফাফিজার রহমান মোস্তফার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হয়েছেন ইসলামী আন্দোলনের হাতপাখা প্রতীকের আমিরুজ্জামান পিয়াল। তিনি পেয়েছেন ৪৯ হাজার ৮৯২ ভোট। তৃতীয় হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে হাতি প্রতীকের লতিফুর রহমান মিলন পেয়েছেন ৩৩ হাজার ৩৬৬ ভোট।

এছাড়াও বাংলাদেশ কংগ্রেসের ডাব প্রতীকের আবু রায়হান পেয়েছেন ১০ হাজার ৫৪৯ ভোট, জাকের পার্টির গোলাপ ফুল প্রতীকের খোরশেদ আলম খোকন পেয়েছেন ৫ হাজার ৮০৯ ভোট, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের মশাল প্রতীকের প্রার্থী পেয়েছেন ৫ হাজার ১৩৮ ভোট, খেলাফত মজলিশের দেওয়াল ঘড়ি প্রতীকের তৌহিদুর রহমান মন্ডল রাজু পেয়েছেন ২ হাজার ৮৬৮ ভোট এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মেহেদী হাসান বনি ২ হাজার ৬৭৯ ভোট ।

ফলাফল প্রসঙ্গে জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা বলেন, এই বিজয়ের জন্য মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। এই বিজয়কে আমি রংপুর মহানগরবাসির কাছে উৎসর্গ করলাম। আপনার আগের মতো আমার পাশে থাকবেন। আমিও দরজায় পর্দাবিহীনভাবে আপনাদের পাশে থাকবো। দুর্নীতি মুক্ত থেকে নগরবাসির সেবা করার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ। তিনি বলেন, ইভিএমএ ভোট ধীর গতিতে এবং বিভিন্ন কেন্দ্রের মেশিনের ক্রুটির কারণে ভোট কম পোলিং হয়েছে। যদি স্বাভাবিকভাবে ভোট হতো এবং কাঙ্ক্ষিত ভোট পোল হত তাহলে এবার আমি ২ লাখ ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হতাম।

নির্ধারিত সময়ের পরও ভোট: নির্ধারিত সময় সাড়ে ৪ টায় হলেও অনেককেন্দ্রে ভোট হয়েছে সন্ধ্যার পর পর্যন্ত। একদিকে অনেক কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষিত হয়েছে, আর অনেক কেন্দ্রে চলেছে ভোট। ইভিএমএ ভোট ধীর গতিতে হওয়ায় যারা সাড়ে চারটার আগে কেন্দ্রে প্রবেশ করেছিলেন তাদের ভোট নেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত ছিল সাড়ে চারটার পরও যেসব কেন্দ্রের ভেতরে মানুষ থাকবে সেখানে ভোট গ্রহণ করা হবে।

নির্বাচন বেশ উৎসবমুখর হয়েছে বলে দাবি করে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবদুল বাতেন জানিয়েছেন, ভোট সুষ্ঠু এবং উৎসব মুখর হয়েছে। ইভিএমএ ভোট কম পোল হওয়ার কারণ ভোটারদের অসেচতনতা, ইভিএম মেশিন কিছু ত্রুটি দেখা দিলেও আমরা সাথে সাথে সেটা ঠিক করেছি। আমরা মক ভোটিংয়ের মাধ্যমে ইভিএমএ ভোট শিক্ষণ করেছি। কিন্তু মানুষ আসে নি।

ournews24.com এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের পছন্দ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_imgspot_img

সর্বশেষ খবর

- Advertisment -spot_imgspot_img