শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত

spot_img
Homeবিশেষ সংবাদনিরাপদ ক্যাম্পাসের দাবিতে ঢাবি উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান

নিরাপদ ক্যাম্পাসের দাবিতে ঢাবি উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাস এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এক শিক্ষকের গাড়িচাপায় এক নারীর মৃত্যুর প্রতিবাদে উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামানের বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭ দিকে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা। 

গাড়িচাপার ঘটনার তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় নিরাপদ ক্যাম্পাস নিশ্চিতের দাবিতে বিভিন্ন ছাত্রসংগঠনের নেতা-কর্মীসহ একদল শিক্ষার্থী এ অবস্থান নেন।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে মিছিল নিয়ে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র ইউনিয়নের একাংশের নেতা-কর্মীরা।

উপাচার্যের বাসভবনের সামনে শিক্ষার্থীদের অবস্থান। ছবি: ইত্তেফাকউপাচার্যের বাসভবনের সামনে শিক্ষার্থীদের অবস্থান। ছবি: ইত্তেফাক

ছাত্র ইউনিয়নের সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র ইউনিয়নের সহসভাপতি মাঈন আহমেদ বলেন, ‘আমরা নিরাপদ ক্যাম্পাস চাই। আমাদের দাবি, ক্যাম্পাসে যানবাহনের গতি নিয়ন্ত্রণ করতে হবে, ভারী যানবাহন নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।’

এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এক নারী পথচারীকে গাড়ি চাপা দেওয়ার ঘটনা ঘটে। গাড়ি চাপা দেওয়ার পর একই গাড়ি দিয়ে ওই নারী পথচারীকে এক কিলোমিটার টেনে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে গাড়ি চালককে পথরোধ করে গণপিটুনি দেয় সাধারণ জনতা। গণপিটুনিতে গাড়িচালক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক ও সহযোগী অধ্যাপক আজহার জাফর শাহ গুরুতর আহত হয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 

ওই নারীর নাম রুবিনা আক্তার (৪৫)। তার বাসা রাজধানীর তেঁজগাওয়ের হুন্ডার গলি এলাকায়। রুবিনা আক্তারকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন তিনি। 

রুবিনা আক্তার। ছবি: ফোকাস বাংলারুবিনা আক্তার। ছবি: ফোকাস বাংলা

ওই নারীর দেবর নুরুল আমিন জানান, তাদের বাসা হাজারীবাগের সেকশন এলাকায়। তেজগাঁও থেকে তিনি ভাবিকে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে সেকশন এলাকায় যাচ্ছিলেন। শাহবাগ মোড় পার হওয়ার পর একটি প্রাইভেটকার পেছন থেকে তাদের মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। সেসময় তার ভাবি ছিটকে পড়েন এবং প্রাইভেটকারের বাম্পারের সঙ্গে আটকে যান। তবে প্রাইভেটকারটি এরপরও না থেমে তার ভাবিকে টেনে-হিঁচড়ে প্রায় নীলক্ষেত পর্যন্ত নিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা প্রাইভেটকারটিকে আটক করে এবং তিনি ভাবিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে যান।

এই গাড়ির নিচে আটকা পড়েছিলেন ওই নারী। ছবি: ফোকাস বাংলাএই গাড়ির নিচে আটকা পড়েছিলেন ওই নারী। ছবি: ফোকাস বাংলা

নীলক্ষেত পুলিশ ইনচার্জ জাফর শিশির বলেন, ‘জাতীয় কবি নজরুল ইসলামের মাজারের সামনে গাড়িটি একটি মোটর সাইকেলকে ধাক্কা দেয়। সেখানে মোটর সাইকেলের আরোহী ওই নারী গাড়ির বাম্বারের সঙ্গে আটকে যান। ওই অবস্থায় গাড়ির ড্রাইভার সেখান থেকে টিএসসি, ভিসি চত্ত্বর, নীলক্ষেত মোড় পর্যন্ত তাকে টেনে নিয়ে আসেন। সেখানে জনতা তাকে আটকিয়ে গণপিটুনি দেয়। গণপিটুনিতে তিনিও মারাত্মকভাবে আহত হন। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে তার চিকিৎসা চলছে।’ 

এদিকে, প্রাইভেটকারের ওই চালকের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। ঢাবি প্রক্টর অধ্যাপক ড. গোলাম রব্বানী ঢামেক হাসপাতালে এসে তার পরিচয় নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ‘ওই শিক্ষক চাকরিচ্যুত। তিনি আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগে সাবেক শিক্ষক আজহার জাফর শাহ।’

ournews24.com এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের পছন্দ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_imgspot_img

সর্বশেষ খবর

- Advertisment -spot_imgspot_img