বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২, ২০২৩

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত

spot_img
Homeজাতীয়৭ দিনে মধুমতি সেতুর টোল আদায় ২৩ লাখের বেশি

৭ দিনে মধুমতি সেতুর টোল আদায় ২৩ লাখের বেশি

দৃষ্টিনন্দন ৬ লেনের মধুমতি সেতু চালুর প্রথম সেতু দিয়ে এক সপ্তাহে ২৫ হাজার ৫৮৭টি যানবাহন পারাপার হয়েছে। এসব যানবাহন থেকে টোল আদায় হয়েছে কমপক্ষে ২৩ লাখ ৩৪ হাজার ২৫০ টাকা।এই সেতুতে দিয়ে গত ১০ অক্টোবর সোমবার রাত ১২টা ১ মিনিটি থেকে গাড়ি চলাচল শুরু হয়। সেতু চালুর প্রথম দিনে তিন হাজার ৫৭৬ টি গাড়ি পার হয়। এখান থেকে চার লাখ ১৪ হাজার ১৫৫ টাকা টোল আদায় হয়েছে। গত ১২ অক্টোবর তিন হাজার ৫৫৪টি গাড়ি পারাপার হয়। এখান থেকে তিন লাখ ৪৮ হাজার ২২৫ টাকা টোল এসেছে। গত ১৩ অক্টোবর এক হাজার ৯৯১টি যানবাহন পারাপার করে দুই লাখ ২৮ হাজার ৮২০ টাকার টোল কালেকশন হয়েছে। ১৪ অক্টোবর টোল আসে চার লাখ ৪৩ হাজার ৯০ টাকা। ১৫ অক্টোবর টোল সংগৃহীত হয় তিন লাখ ৩ হাজার ৬০০ টাকা। ১৬ অক্টোবর দুই লাখ ৮২ হাজার ৯৫০ দুই টাকার টোল আদায় হয়। ১৭ অক্টোবর তিন লাখ ১৩ হাজার ৪১০ টাকার টোল আদায় হয়েছে। সবমিলিয়ে গত ৭ দিনে মোট ২৫ হাজার ৫৮৭ টি যানবাহন পারাপারে ২৩ লাখ ৩৪ হাজার ২৫০ টাকার টোল আদায় হয়েছে।গাড়ি চলাচল ও টোল আদায়ের ওই তথ্য আজ বুধবার (১৯ অক্টোবর) সকালে নিশ্চিত করেছেন গোপালগঞ্জ সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ জাহিদ হোসেন।তিনি বলেন, টোল আদায় ব্যবস্থাকে এখনো ইজারা দেওয়া হয়নি। গোপালগঞ্জ সওজের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা টোল আদায় করছেন। টোলের কম্পিউটারাইজ রশিদ দেওয়া হচ্ছে।উল্লেখ্য, গত ১০ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার কার্যালয় থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মধুমতি নদীর কালনা পয়েন্টে সেতুর উদ্বোধন করেন। এটি স্থানীয়দের কাছে কালনা সেতু নামে পরিচিত। এরপর সোমবার রাত ১২টার পর থেকে এ সেতুতে গাড়ি চলাচল শুরু হয়।সেতু কর্তৃপক্ষ জানায়, জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির (জাইকা) অর্থায়নে ৯৬০ কোটি টাকা ব্যয়ে জাপানি ও বাংলাদেশি ঠিকাদারেরা যৌথভাবে সেতুটি তৈরি করেছেন। সেতুর দৈর্ঘ্য ৬৯০ মিটার ও প্রস্থ ২৭ দশমিক ১০ মিটার।মোহাম্মদ জাহিদ হোসেন বলেন, এ রুটে পুরোদমে এখনো গাড়ি চলাচল শুরু হয়নি। ভোমরা, বেনাপোল পোর্ট ব্যবহারকারীরা অচিরেই এই রুট বেছে নেবেন। এছাড়া ঢাকা-বেনাপোল, ঢাকা-যশোর সহ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ১০ জেলার পরিবহন চলাচল পুরোপুরি শুরু হলে এ সেতুতে টোল আদায়ের হার আরো বৃদ্ধি পাবে। আমরা আমাদের লোকবল দিয়ে কিছুদিন টোল কালেকশন করব। তারপর টোল আদায়ের গড় হিসাব করে দেখা হবে। বিষয়টি পর্যালোচনা করে মধুমতি সেতুর টোল আদায়ে ইজারাদার নিয়োগ দেওয়া হবে। টোল কালেকশন সিস্টেম কম্পিউটারাইজ করা হয়েছে। তাই এখান থেকে শতভাগ টোল আদায় করা সম্ভব হবে।

ournews24.com এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের পছন্দ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_imgspot_img

সর্বশেষ খবর

- Advertisment -spot_imgspot_img