বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২, ২০২৩

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত

spot_img
Homeআন্তর্জাতিক‘৩০ মিনিটে ধ্বংস হতে পারে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপ’

‘৩০ মিনিটে ধ্বংস হতে পারে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপ’

ইউক্রেন–রাশিয়া সংঘাত নিয়ে একের পর এক মন্তব্য করে প্রায় প্রতিদিনই শিরোনাম হচ্ছেন ইলন মাস্ক। এবার পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহারের ঝুঁকি নিয়ে টুইটারে ‘বিস্ফোরক’ মন্তব্য করেছেন মার্কিন এ ধনকুবের।

যুক্তরাষ্ট্রের বৈদ্যুতিক গাড়িনির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলারের প্রধান ও বিশ্বের শীর্ষ ধনী ব্যক্তি ইলন মাস্ক শনিবার (১৫ অক্টোবর) এক টুইটে দাবি করেন, ক্ষেপণাস্ত্রের মাধ্যমে পারমাণবিক বোমা হামলা চালিয়ে ৩০ মিনিটেই যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপকে ধ্বংস করার সক্ষমতা আছে রাশিয়ার।

মূলত ওইদিন ইলন মাস্কের একজন অনুসারী তার অ্যাকাউন্টে রয়টার্সের একটি প্রতিবেদন উল্লেখ করেন। রয়টার্সের ওই প্রতিবেদনে সোমবার (১৭ অক্টোবর) থেকে বি–৫২ বোমারু বিমান নিয়ে ন্যাটোর পরমাণু অস্ত্রের মহড়া শুরুর কথা জানানো হয়। টুইটটি রিটুইট করে ইলন মাস্ক রাশিয়ার পরমাণু সক্ষমতা নিয়ে এ মন্তব্য করেন।

ইলন মাস্ক টুইটারে লিখেছেন, ‘রাশিয়া ৩০ মিনিটেরও কম সময়ে পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপকে সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে। ঠিক একইভাবে এই সক্ষমতা যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপেরও আছে। অবাক করার মতো বিষয় হচ্ছে, বেশির ভাগ মানুষই এটা জানেন না। অবশ্যই এসব অস্ত্রের ব্যবহার করাটা হবে পাগলামি, কিন্তু এখন যে পরিস্থিতি বিরাজমান সেটিও আসলে পাগলামিই।’

এরপর টুইটটি রিটুইট করে ইলন মাস্ক আরও বলেন, ‘কিন্তু অবশ্যই কোনো দায়িত্ববান ব্যক্তি পারমাণবিক যুদ্ধ শুরু করবেন না। তবে এই যুক্তির সমস্যাটা হচ্ছে, আমাদের যদি দায়িত্ববান ব্যক্তি থাকতেন, তাহলে যুদ্ধ আমাদের অগ্রাধিকার তালিকায় থাকত না। গত ৬০ বছরের মধ্যে আমরা পারমাণবিক যুদ্ধের সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছি।’

নিরাপত্তা বিশ্লেষকরা বলছেন, পশ্চিমা জোটের এ মহড়া উত্তেজনা আরও বাড়াবে; যা তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধেও রূপ নিতে পারে। তবে ন্যাটো বলছে, রাশিয়ার হামলা ঠেকানোর আগাম প্রস্তুতি নয়, বরং নিয়মিত মহড়ার অংশ হিসেবে এ অনুশীলন।

ournews24.com এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের পছন্দ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_imgspot_img

সর্বশেষ খবর

- Advertisment -spot_imgspot_img