সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২২

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত

spot_img
Homeজাতীয়৩০ হাজারেরও বেশি সরকারি ওয়েবসাইটে প্রবেশ করা যাচ্ছে না

৩০ হাজারেরও বেশি সরকারি ওয়েবসাইটে প্রবেশ করা যাচ্ছে না

বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লিমিটেডের (বিটিসিএল) সার্ভারে বৈদ্যুতিক গোলযোগের কারণে ৩০ হাজারেরও বেশি সরকারি ওয়েবসাইটে (.gov.bd) প্রবেশ করা যাচ্ছে না।

রোববার (৬ ডিসেম্বর) সকাল থেকে বিটিসিএলের সার্ভারে বিদ্যুৎ সংযোগের ইনভার্টার জ্বলে যাওয়ায় এ সমস্যা দেখা দিয়েছে। সরকারের এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই) প্রকল্প ও বিটিসিএলের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

মগবাজারে বিটিসিএলের সার্ভারে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার পর থেকে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ ও দফতর, অধিদফতর, সংস্থা ও মাঠ পর্যায়ে সরকারি অফিসগুলোর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করা যাচ্ছে না। সকাল থেকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, আইন মন্ত্রণালয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়, স্থানীয় সরকারি বিভাগের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করা যাচ্ছে না। খাদ্য অধিদফতর, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতর, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরসহ কোনো অধিদফতর ও সংস্থার ওয়েবসাইটেও প্রবেশ করা যাচ্ছে না।

সরকারি দফতরের ওয়েবসাইটের তদারকি করে এটুআই। এটুআই’র প্রধান কারিগরি কর্মকর্তা আরফে এলাহী রোববার সন্ধ্যায় বলেন, ‘আজ সকাল ১০টার দিকে বিটিসিএলের বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেছে। যেখানে আমাদের সার্ভার রয়েছে। পাওয়ার না থাকলে আমরা সার্ভার রান করাতে পারি না। পোর্টাল কিংবা সার্ভারে সমস্যা নেই। এর আগে গত রাতেও সমস্যা দেখা দিয়েছিল, সেটা ঠিক করা হয়েছিল। কিন্তু সকালে আবার দ্বিতীয় দফায় সমস্যা দেখা দিয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘মূলত বিটিসিএলের ইনভার্টার জ্বলে গেছে। বড় ইনভার্টার তো তাৎক্ষণিকভাবে পাওয়া যায় না, ছোট ছোট ইনভার্টারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। কানেকশনের কাজ চলছে। পাওয়ার এলে আমরা আশা করছি অল্প সময়ের মধ্যে সার্ভারের একটা অংশ চালু করতে পারব। বিদ্যুৎ এলে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে সিস্টেমটাকে রি-স্টার্ট করে রেডি করা যাবে। তখন গ্রাজুয়ালি একটির পর একটি ওয়েবসাইট ভিজিবল হতে শুরু করবে।’

‘সারারাত ওখানে কাজ হবে। বিটিসিএলের সঙ্গে আমাদের (এটুআই) টিমও সেখানে থাকবে।’

তিনি বলেন, ‘এ কারণে ৩০ হাজারেরও বেশি সরকারি ওয়েবসাইট ডাউন হয়ে আছে, সাইটগুলোতে প্রবেশ করা যাচ্ছে না। মন্ত্রণালয় ও দফতর মিলে মোট ওয়েবসাইট ৪২ হাজারের মতো। আমাদের ম্যাক্সিমাম ওয়েবসাইটগুলোই এখন বিটিসিএলের সার্ভারে। বাকিগুলো ন্যাশনাল ডেটা সেন্টারে।’

প্রধান কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘বিদ্যুৎ সংযোগ পুরোপুরি সচল হলে সারারাত কাজ করে আমরা আগামীকাল নাগাদ সাইটগুলো চালু করার চেষ্টা করছি। আমাদের ফুল টিম সেখানে ডেপ্লয় করা আছে।

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর অফিস, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও দফতরের গুরুত্বপূর্ণ ৬২টি ওয়েবসাইটকে আমরা একটু সংবেদনশীল মনে করি। এই সাইটগুলোর কয়েকটি বন্ধ রয়েছে।’

বিটিসিএলের জেনারেল ম্যানেজার (জনসংযোগ ও প্রকাশনা) মীর মোহাম্মদ মোরশেদ বলেন, ‘বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ হওয়ায় ওয়েবসাইটগুলো দেখা যাচ্ছিল না।’ বিদ্যুৎ সংযোগ পুনরায় সচল হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি।

আওয়ারনিউজটোয়েন্টিফোর.কম এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের পছন্দ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

সর্বশেষ খবর