রবিবার, অক্টোবর ২, ২০২২

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত

spot_img
HomeUncategorizedশোবিজ ছেড়ে পরিবারের চাপেই কি মুফতিকে বিয়ে করলেন সানা?

শোবিজ ছেড়ে পরিবারের চাপেই কি মুফতিকে বিয়ে করলেন সানা?

শোবিজ দুনিয়াকে বিদায় জানিয়ে সানা খানের একজন মুফতিকে বিয়ের খবরে তোলপাড় ভারতীয় মিডিয়া। কয়েকমাস আগেই অভিনয় থেকে ধর্মের টানে অবসর নেওয়ার ঘোষণার পর এবার বিয়েটাও সেরে ফেললেন তিনি। ২১ নভেম্বর সুরাটে এক মুসলিম ধর্মগুরুকে বিয়ে করেন তিনি। খুব সাদামাটা ভাবে তারা বিয়ে করেন। বিয়ের একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিকমাধ্যমে।

তাতে দেখা যাচ্ছে, সাদা পোশাক পরে ওই মুফতি আনাসের হাত ধরে সিঁড়ি দিয়ে নামছেন সানা। তারপর কেক কেটে নিজেদের বিয়ে উদযাপন করছেন। কেকের ওপর লেখা ‘নিকাহ মুবারক’। আচমকা অভিনয় জগতকে বিদায় জানানোর তার এই সিদ্ধান্তে অবাক হয়েছিলেন ইন্ডাস্ট্রির অনেকেই। তবে অভিনেত্রী জায়রা ওয়াসিমের ক্ষেত্রে যেমন বিতর্ক হয়েছিল, এক্ষেত্রে তেমন কিছু হয়নি। বরং অভিনেতা অর্জুন বিজলানি থেকে শুরু করে দিব্যা আগরওয়াল – অনেকেই সানার এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়ে তাকে এগিয়ে যাওয়ার বার্তা দিয়েছিলেন।
সানার জন্ম মুম্বাইয়ের এক মুসলিম পরিবারে। মডেলিং দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু তার। তারপর বিভিন্ন বিজ্ঞাপনেও পরিচিত মুখ হয়ে ওঠেন তিনি। ২০০৫ সালে একটি কম বাজেটের হিন্দি সিনেমা দিয়ে বলিউডে ক্যারিয়ার শুরু করেন সানা। এরপর তামিল, তেলুগু, কন্নড়, মালয়ালাম ভাষায় একাধিক সিনেমাতে দেখা যায় তাকে। বলিউডে অবশ্য সাফল্য তখনও অধরা ছিল।

২০১২ সালে রিয়্যালিটি শো ‘বিগ বস-এ অংশগ্রহণ করার পর বিপুল জনপ্রিয়তা পান তিনি। এরপর সালমান খানের ‘জয় হো’ সিনেমাতে তাকে ছোট একটি চরিত্রে দেখা যায় ২০১৩ সালে। এক বছর পর ‘ওয়াজা তুম হো’ ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। যদিও বক্স অফিসে সাফল্য পায়নি সেই ছবিও। এছাড়াও তাকে দেখা যায় ‘স্পেশ্যাল অপস’ ওয়েব সিরিজে। একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় অভিনয় করেন সানা।

প্রথম থেকেই যার লক্ষ্য ছিল বলিউড এবং গ্ল্যামার দুনিয়া সেই তিনিই সম্প্রতি নিজের ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্টে ১৫ বছরের সুদীর্ঘ ক্যারিয়ারে ইতি টানেন। ওই পোস্টে অভিনয় থেকে অবসর নেওয়ার কথা জানান সানা। নিজের টুইটার এবং ফেসবুক পেজেও সেই পোস্ট শেয়ার করেন তিনি। জানান, গ্ল্যামার দুনিয়াকে বিদায় জানিয়ে তিনি অসহায়ের পাশে দাঁড়িয়ে ইসলামের পথে চলতে চান।

অভিনেত্রীর কথায়, ‘ইহলোকে আল্লাহর আদেশ মেনে চললে পরলোকে সুখ হয়। জীবনের যশ, খ্যাতি, ধন-দৌলত উপার্জন তাই একমাত্র লক্ষ্য হওয়া উচিত নয়। লোভের জীবন ত্যাগ করে মনুষ্যত্বের পথে চলা উচিত। আমিও সেই পথে চলব বলে ঠিক করেছি। সৃষ্টিকর্তার নির্দেশ পালন করব। সবাই প্রার্থনা করুন, আল্লাহ যাতে আমাকে পথ দেখান এবং মানুষকে সেবা করার শক্তি জোগান।’

ইন্ডাস্ট্রি থেকে নিজেকে বিচ্ছিন্ন করার মুহূর্তকে ‘জীবনের সবচেয়ে খুশির মুহূর্ত’ বলে উল্লেখ করেন সানা। এই ঘোষণার পরই নিজের ইনস্টাগ্রাম থেকেও এমন সব ছবি মুছে দিয়েছেন যা তার পুরনো জীবনকে তুলে ধরে। এর আগে ডান্স কোরিয়োগ্রাফার মেলভিনের সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল। গত ফেব্রুয়ারি মাসেই তাদের সম্পর্ক ভাঙার কথা সামনে আসে। তারপর থেকেই প্রাক্তন প্রেমিকের সম্পর্কে একের পর এক বিস্ফোরক মন্তব্য করেন তিনি।

সানা বরাবরই আবেদনময়ী অভিনেত্রী হিসেবেই পরিচিত ছিলেন। তবে তার খোলামেলা দৃশ্যে অভিনয় করাটা পরিবারের লোকেরা মোটেই পছন্দ করতেন না। এই কারণে এক সময় তার মা তার সঙ্গে কথা বলাও বন্ধ করে দিয়েছিলেন বলে জানিয়েছিলেন সানা। তাই সানার বলিউড ছাড়ার এহেন সিদ্ধান্তের পিছনে পরিবারের চাপ ছিল বলেও মনে করেন অনেকে। যদিও এ নিয়ে কোনও মন্তব্য পাওয়া যায়নি তার।

আওয়ারনিউজটোয়েন্টিফোর.কম এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের পছন্দ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

সর্বশেষ খবর