মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত

spot_img
Homeখেলাধুলাকোহলির ছুটিতে ক্ষেপলেন কপিল দেব!

কোহলির ছুটিতে ক্ষেপলেন কপিল দেব!

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শেষ তিন টেস্টে খেলতে পারবেন না ভারতের নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। পিতৃত্বকালীন ছুটিতে থাকায় এই সিরিজের অংশ হতে পারছেন না তিনি। কোহলির এই অনুপস্থিতি নিয়ে এরই মধ্যে নানা কথা হচ্ছে। নানা গুঞ্জনও শোনা যাচ্ছে। কেউ কেউ কোহলির সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন। কেউ আবার বিরাটের পাশেও দাঁড়িয়েছেন।

ভারতকে প্রথম বিশ্বকাপের স্বাদ পাইয়ে দেয়া অধিনায়ক কপিল দেব কোহলির এই সিদ্ধান্তে চুপ থাকতে পারলেন না। সিরিজে ছুটির শুনেই ক্ষেপে গেলেন কপিল। তিনি জানিয়ে দিলেন, তাদের সময়ে এমনটা ভাবারও সুযোগ ছিল না।

কথা রয়েছে, সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী বছরের শুরুতেই, অর্থাৎ জানুয়ারি মাসে প্রথমবার বাবা হবেন কোহলি। সে কারণেই অস্ট্রেলিয়া সফরের মাঝে দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত ভারতের নিয়মিত অধিনায়কের। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) কাছে আগেই অনুরোধ জানিয়ে রেখেছিলেন। যে কারণে ছুটিও পেয়েছেন দ্রুত।

বিসিসিআইর পক্ষ থেকে জানানো হয়, অসিদের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট খেলেই ফিরে আসবেন ভারত অধিনায়ক। অনেকে তার এই সিদ্ধান্তের প্রশংসা করলেও নেটিজেনদের বড় অংশ সমালোচনায় মুখর হয়ে ওঠে। তার সঙ্গে তুলনা করা হয় মহেন্দ্র সিং ধোনিকেও। অনেকেই কটাক্ষের সুরে বলেন, জিভার জন্মের সময় কিন্তু ধোনি দেশের দায়িত্ব ছেড়ে দিয়ে বাড়ি ফিরে যাননি।

এ কারণেই মূলত কোহলির পিতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে মুখ খুললেন কপিল দেব। প্রথমেই এমন সুখবরের জন্য কোহলিকে অগ্রিম শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি। এরপরই তার বক্তব্য, আমাদের সময়ে এমনটা সম্ভব হতো বলে মনে হয় না। ছুটি একবার নিয়ে আবার ফেরত আসতাম, নিশ্চিতভাবে এমন সুযোগ পাওয়া যেত না। সুনিল গাভাস্কারের কথাই ধরুন। সে যেমন কয়েক মাস ছেলের মুখই দেখতে পাননি। তখন পরিস্থিতি অন্যরকম ছিল। সময় বদলে গেছে। কোহলির উদাহরণ দিয়েই বলি। বাবা হারানোর পরদিনই তো মাঠে নেমেছিল। এবার সে সন্তান আসার দায়িত্ব পালনে ছুটি নিচ্ছে। সম্ভব হলে নিতেই পারে।

এরপরই যুক্ত করলেন, এখন ইচ্ছে হলে কোনও খেলোয়াড় নিজে বিমান কিনেও যাতায়াত করতে পারে। ভাবলে ভালোই লাগে যে ক্রীড়াবিদরা এখন এতটা উচ্চতায় পৌঁছে গেছে। বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক একই সঙ্গে বুঝিয়ে দেন, কোহলি ছুটি নেয়ায় ক্রিকেটের প্রতি যে তার ভালোবাসা কমে গেছে, এমনটা ভাবারও কোনো কারণ নেই।

আওয়ারনিউজটোয়েন্টিফোর.কম এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের পছন্দ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

সর্বশেষ খবর