সোমবার, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৩

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত

spot_img
Homeবিশেষ সংবাদরেমিট্যান্সে এ বছর বিশ্বে ৮ম হবে বাংলাদেশ

রেমিট্যান্সে এ বছর বিশ্বে ৮ম হবে বাংলাদেশ

বিশ্বের অধিকাংশ দেশের প্রবাসী আয় কমলেও বাংলাদেশের বাড়বে। রেমিট্যান্স প্রবাহে এবার বিশ্বে অষ্টম অবস্থানে থাকবে বাংলাদেশ।

শুক্রবার বিশ্বব্যাংক প্রকাশিত অভিবাসনের দৃষ্টিতে কোভিড-১৯ সংকট শীর্ষক এক প্রতিবেদনে বাংলাদেশ সম্পর্কে এমন প্রাক্কলন রয়েছে। কয়েক বছর ধরে শীর্ষ- ১০ এর মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২০ সালে বাংলাদেশে রেমিট্যান্স আসবে ১৯ দশমিক ৭৬ বিলিয়ন ডলার। করোনার এসময়ে অধিকাংশ দেশের রেমিট্যান্স কমলেও বাংলাদেশের পাশাপাশি মেক্সিকো এবং দক্ষিণ এশিয়ার আরেক দেশ পাকিস্তানের বাড়বে। এবারে বাংলাদেশের রেমিট্যান্স ৮ শতাংশ বাড়বে বলে প্রক্ষেপন করা হয়েছে।

এতে বলা হয়, রেমিট্যান্সের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ কোভিডের প্রভাব তেমন নেতিবাচক হয়নি। হুন্ডি কমে যাওয়ার কারণে প্রাতিষ্ঠানিক চ্যানেলে রেমিট্যান্স বেড়েছে এবং সরকারের প্রণোদনা ইতিবাচক প্রভাব ফেলেছে। অবশ্য গত এপ্রিলে বিশ্বব্যাংক ২০২০ সালে বাংলাদেশের রেমিট্যান্স ২০ শতাংশ কমে ১৪ বিলিয়ন ডলার হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছিল।

বিশ্বব্যাংক বলেছে, ২০২০ সালে সামগ্রিকভাবে বিশ্বে রেমিট্যান্স কমবে সাত শতাংশ। তবে পরিমাণের দিক থেকে এবারও প্রথমে থাকবে ভারত। দেশটিতে এবার প্রবাসী আয় ৯ শতাংশ কমে ৭৬ বিলিয়ন ডলার আসতে পারে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা চীনের আসবে ৬০ বিলিয়ন ডলার এবং তৃতীয় অবস্থানে থাকা মেক্সিকোর আসবে ৪১ বিলিয়ন ডলার। তবে শীর্ষে থাকা এই তিন দেশের মধ্যে শুধু মেপিকোর রেমিট্যান্স বাড়বে। পাকিস্তান রয়েছে ৬ষ্ঠ অবস্থানে। দেশটির রেমিট্যান্সের পরিমাণ ৯ শতাংশ বেড়ে ২৪ বিলিয়ন ডলার হতে পারে। এদিকে বিশ্বব্যাংক মনে করছে, আগামী বছর বিশ্বে রেমিট্যান্স আসার পরিমাণ কমবে ১৪ শতাংশ।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, বিমানযোগে ভ্রমণ নিয়ন্ত্রণের ফলে কাছে করে ডলার আনা কমে যাওয়া এবং রেমিট্যান্সে প্রণোদনার ফলে করোনা সঙ্কটের মধ্যেও ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স প্রবাহের গতি রয়েছে। আবার বাংলাদেশে ঈদ ও বন্যার কারণে তৃতীয় প্রান্তিকে রেমিট্যান্স প্রবাহ গত বছরের একই সময়ের তুলনায় বেড়েছে। করোনাভাইরাসের কারণে চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে যারা টাকা পাঠাননি তারাও তৃতীয় প্রান্তিকে পাঠিয়েছেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে প্রবাসীরা ৬৭১ কোটি ডলার সমপরিমাণ অর্থ দেশে পাঠিয়েছেন। আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় যা ২১৯ কোটি ডলার বা ৪৮ দশমিক ৫৪ শতাংশ বেশি। ২০১৯ সালে রেমিট্যান্স এসেছিল ১৮ দশমিক ৩৬ বিলিয়ন ডলার। তার আগের বছর এর পরিমাণ ছিল ১৫ দশমিক ৫৪ বিলিয়ন ডলার।

ournews24.com এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের পছন্দ
- Advertisment -spot_imgspot_img

সর্বশেষ খবর

- Advertisment -spot_imgspot_img