রবিবার, অক্টোবর ২, ২০২২

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত

spot_img
Homeবিশেষ সংবাদবঙ্গবন্ধু-ডিআরইউ অ্যাওয়ার্ড পেলেন ১৫ সাংবাদিক

বঙ্গবন্ধু-ডিআরইউ অ্যাওয়ার্ড পেলেন ১৫ সাংবাদিক

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে সমকালে প্রকাশিত একটি ধারাবাহিক প্রতিবেদনসহ মোট ১৫টি বিশেষ প্রতিবেদন এ বছর ‘বঙ্গবন্ধু-ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) অ্যাওয়ার্ড-২০২০’তে শ্রেষ্ঠ রিপোর্টের মর্যাদা পেয়েছে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে এই পুরস্কারটি এবার তার নামেই ‘বঙ্গবন্ধু-ডিআরইউ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড-২০২০’ নামকরণ করা হয়েছে। শুক্রবার রাজধানীর ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্সের (আইডিইবি) মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি মিলনায়তনে এই পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী অনুষ্ঠানে অনলাইনের মাধ্যমে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেন। পুরস্কার হিসেবে বিজয়ীদের ক্রেস্টের পাশাপাশি একটি সনদ ও এক লাখ টাকার চেক হাতে তুলে দেওয়া হয়। রিপোর্টারদের পেশাগত কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ প্রতি বছর এ পুরস্কার দিয়ে থাকে ডিআরইউ।

এবার প্রিন্ট রিপোর্টিংয়ে সমকালের আবু সালেহ রনি পেয়েছেন ‘বঙ্গবন্ধু-ডিআরইউ) অ্যাওয়ার্ড। গত বছরের ১ ডিসেম্বর থেকে একাত্তরের যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে সমকালে প্রকাশিত ১৬ পর্বের ধারাবাহিক প্রতিবেদনের জন্য তাকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়। তিনি ছাড়াও আরও ১৪ জন প্রিন্ট, অনলাইন, টেলিভিশন ও বেতারের সাংবাদিক বিভিন্ন বিষয়ে এই পুরস্কার পেয়েছেন।

অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের জনস্বার্থে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের আহবান জানিয়ে জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, ‘রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ হিসেবে সংবাদ মাধ্যমকে বিবেচনা করা হয়। শক্তিশালী গণমাধ্যম রাষ্ট্রযন্ত্রকে সঠিকভাবে পরিচালনার চালিকাশক্তি।’

এ সময় মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জনগণকে উজ্জীবিত করতে গণমাধ্যমগুলোকে কার করারও আহবান জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘গণমাধ্যমে প্রকাশিত বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করতে পারে। গণমাধ্যম জীবনের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ।গণমাধ্যমে প্রকাশিত তথ্য জনমত তৈরিতে এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।’

ডিআরইউ’র সভাপতি রফিকুল ইসলাম আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য দেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম (ভার্চুয়াল মাধ্যমে), আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আনোয়ার হোসেন, সেরা রিপোর্ট বাছাইয়ের জন্য গঠিত জুরি বোর্ডের চেয়ারম্যান ও ডিআরইউর সাবেক সভাপতি শাহজাহান সরদার, ডিআরইউর সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ চৌধুরি,যুগ্ম সম্পাদক হেলেমুল আলম বিপ্লব। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক হাবীবুর রহমান

বিভিন্ন বিষয়ে পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন- মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে সমকালের আবু সালেহ রনি, শিক্ষা ক্যাটাগরিতে ‘আনকমন এররস ইন কমন এব্রিভাইটেশন’ শিরোনামে প্রতিবেদনের জন্য দ্য ফিনান্সিয়াল এপপ্রেসের রায়হান এম চৌধুরী, স্বাস্থ্য বিষয়ে ‘৫শ’ টাকার গগলস পাঁচ হাজার, ২ হাজারের পিপিই ৪৭শ’ প্রতিবেদনের জন্য কালের কণ্ঠের আরিফুর রহমান, অনুসন্ধানী বিষয়ে (উন্মুক্ত) ‘সন্ত্রাসীদের হাতে রাজনীতির ”চেরাগ” প্রতিবেদনের জন্য প্রথম আলোর কামরুল হাসান, অর্থ-বাণিজ্য বিষয়ে ‘ডেসটিনির সম্পদ বারো ভুতের দখলে!’ প্রতিবেদনের জন্য ভোরের কাগজের মরিয়ম সেঁজুতি, সেবাখাতে ‘ময়লার টাকাও খান কাউন্সিলররা!’ প্রতিবেদনের জন্য বাংলা ট্রিবিউনের শাহেদ শফিক, ক্রীড়াখাতে’ পেশাদার লীগে অপেশাদারিত্ব’ শিরোনামে ধারাবাহিক প্রতিবেদনের জন্য নয়াদিগন্তের রফিকুল হায়দার ফরহাদ, শিল্প-সংস্কৃতি-ঐতিহ্য বিষয়ে ‘বিলুপ্তির পথে সিনেমার ব্যানার পেইন্টিং, আঁকিয়েরা ভিন্ন পেশায়’ প্রতিবেদনের জন্য জনকণ্ঠের মনোয়ার হোসেন, আইন ও মানবাধিকার বিষয়ে ‘হত্যা ধর্ষণের সত্যতা হারিয়ে যায় ফাইনাল রিপোর্টে’ সিরিজ প্রতিবেদনের জন্য ইত্তেফাকের সমীর কুমার দে পুরস্কার লাভ করেন।

এ ছাড়া টেলিভিশন ও বেতার মিডিয়ায় সেবাখাতে ‘ঢাকার বায়ু দুষণ’ নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদনের জন্য চ্যানেল ২৪ এর মো. মাকসুদ-উন-নবী, অনুসন্ধানী রিপোর্ট (উন্মুক্ত) বিষয়ে যুগ্ম বিজয়ী হয়েছেন। এর মধ্যে ‘আপনার এনআইডি কয়টি?’ প্রতিবেদনের জন্য যমুনা টেলিভিশনের মো. আলাউদ্দিন আহমেদ ও ‘খাল-নলকুপ গেল কোথায়?’ প্রতিবেদনের জন্য যমুনা টেলিভিশনের কাজী ইমতিয়াজ আল মোমিন, অর্থ-বাণিজ্য বিষয়ে ‘কর্মসংস্থানে করোনার প্রভাব’ এনটিভির হাসানুল আলম (শাওন), স্বাস্থ্যখাতে ‘টাকায় মেলে পজেটিভ নেগেটিভ’ প্রতিবেদনের জন্য যমুনা টেলিভিশনের সাজ্জাদ পারভেজ, নারী ও শিশু বিষয়ে ‘দাসী নাকি রেমিট্যান্স যোদ্ধা’ প্রতিবেদনের জন্য নিউজ-২৪ এর আশিকুর রহমান শ্রাবণ পুরস্কার লাভ করেন।

আওয়ারনিউজটোয়েন্টিফোর.কম এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের পছন্দ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

সর্বশেষ খবর