‘হা’ বললে ‘হালিম’বোঝেন! কেন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে এই পদ  রোজায় জানেন?

82

বিশেষ প্রতিবেদন:“ হা’থেকেই হালিম”যাই বুঝি না কেন, রমজান মাসে রাজধানীর চকবাজার, বেইলী রোড,ধানমন্ডি মামা  হা বললে বুঝতে হবে হালিম।  রাজধানীসহ সমগ্র বাংলাদেশে এই রমজানে এখন তো হালিম রয়েছেই, গত কয়েক বছরে হালিম জায়েন্ট ছড়িয়ে পড়েছে  আনাচে কানাচে। বিফ হালিম তো ছিলই, ক্রেতা ধরতে বাজারে হাজির চিকেন-মটন হালিমও।

বাঙালির এত প্রিয় মুসলিম খানা, অথচ অনেকেই জানেন না হালিম কিন্তু বাঙালি-মুসলিম সংস্কৃতির অংশ নয়। বরং অনেক বেশি রয়েছে  নিজাম কানেকশন। এই খাবারটি মূলত ভারতের হায়দারাবাদেই ব্যাপক প্রচলিত । তবে হালিম খাবারটি এসেছে আরবি খাবার ‘হারিসা’থেকে। খ্রিস্টিয় দশম শতকে ‘কিতাব আল-তাবিক’ নামে একটি বইতে প্রথম হালিম প্রস্তুতির উল্লেখ পাওয়া যায়।  আর এই হালিম মূলত ভারতে  আরব সৈনিকদের হাত ধরেই হালিমের প্রবেশ। হালিম খাওয়ার চল শুরু হয়েছিল হায়দরাবাদেই,“তবে কালের বিব্রতনে বাংলাদেশেও এর চাহিদা ব্যাপক। হালিম তৈরি হতে লাগে প্রায় ১২ ঘণ্টা। আগের দিন রাতে চুলায় বসালে হালিম রান্না হতে পরের দিন সকাল গড়িয়ে দুপুর। রকমারি ডাল, গম সিদ্ধ করা হয় প্রথমে। তার পর মাংস, দুধ, জিরা, তালের গুড় ইত্যাদি নানা উপাদানে একটু একটু করে সেজে ওঠে হালিমের হাঁড়ি।  অধিকাংশ কারিগরই ঐতিহ্যের কারণেই গোপন রাখেন হালিমের প্রধান মশলাগুলির নাম, কারণ সেটাই ইউএসপি।

রমজান মাসে রোজাদারগনদের মধ্যে  অনেকেই হালিম কেন খান:

পুষ্টিবিদরা বলছেন, হালিম খুবই উচ্চ ক্যালোরিযুক্ত খাবার। এটি দ্রুত হজম হয় । এতে থাকা শুকনো ফলে রয়েছে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট । মাংস একে উচ্চ প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবারে পরিণত করেছে । ফলে সারা দিনের লম্বা সময়ের উপোস থাকার ফলে শরীরে যে খাটতি তৈরি হয় সেটা অনেকটাই দূর হয় হালিম খেলে। সঙ্গে কার্বোহাইড্রেট চনমনে থাকার রসদ।

হালিমের জনপ্রিয়তা:

তথ্য বলছে রমজান মাসে রাজধানীর পুরান ঢাকাসহ সর্বত্রই হালিম হালিমের দোকানে হালিম বিক্রি হয়।  টাকার অঙ্কটা এক না হলেও গত কয়েক বছরে কলকাতাতেও পাল্লা দিয়ে বেড়েছে হালিমের জনপ্রিয়তা। বিকেল হলেই গুটিগুটি পায়ে হালিমের সামনে ভিড় বাড়াচ্ছেন ভোজনরসিকরা। জেন মামা  হালিমে মজেছে ভালই।

আজান ভেসে আসছে, সারা দিনের গরমের দাপটের শেষে প্রাণ জুড়িয়ে দিচ্ছে আলগা হাওয়া। এমন সময় কুসুম  কুসুম গরম হালিমের স্বাদ,  পড়ে পাওয়া চোদ্দ আনার জীবনে নতুন প্রেমের মতোই আলগোছে আনন্দ! হালিম ইচ্ছে করলে আপনি নান রুটি, মুড়ি দিয়েও খেতে পারেন ্ইফতারের পরে মজা করে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here