রাহুলকে সঙ্গে নিয়ে লখনৌতে রোড শো শুরু করলেন প্রিয়াঙ্কা

33

আন্তর্জাতিক সংবাদঃ দলীয় দায়িত্ব নিয়ে লখনৌতে পৌঁছালেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। লখনৌ পৌঁছে রোড শো শুরু করলেন তিনি। তার সঙ্গে আছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। পুরো রাস্তাটাই ঢাকা পড়েছে তার পোস্টারে।

রোড শো  শুরু হতেই  কর্মীদের  উদ্দেশে হাত নাড়তে  শুরু করেন প্রিয়াঙ্কা। ভিড় ঠেলে এগিয়ে যাচ্ছে রাহুল-প্রিয়াঙ্কাদের বাস। দুপাশে প্রচুর মানুষ এসে জড়ো হয়েছেন। ভিড় থাকায় যানবাহনের গতিও কমে এসেছে।

তিনি দলের হয়ে পূর্ব উত্তরপ্রদেশের সংগঠনের কাজ দেখভাল করবেন। তার সঙ্গেই নতুন দায়িত্ব পেয়েছেন মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া।

তিনি পশ্চিম উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেসকে শক্ত ভিতের উপর দাঁড় করানোর কাজ করবেন। ইতোমধ্যে দায়িত্ব বুঝে নিয়েছেন জ্যোতিরাদিত্য। আজ  তিনিও এসেছেন। আছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীও।

খাতায় কলমে রাজনৈতিক জীবন শুরুর আগে পরিবর্তনের বার্তা দিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। শক্তি অ্যাপের মাধ্যমে রবিবার সমর্থকদের প্রিয়াঙ্কা বলেন, আমি চাই আমাদের সবার অংশগ্রহণের মাধ্যমে রাজনীতিতে একটা পরিবর্তন আসুক। রাজনীতির পরিসর এমন হোক যেখানে সকলে নিজেকে তার অংশ ভাবতে পারে। এই তিন নেতা লখনৌ বিমানবন্দরে এসে নামেন।

সেখান থেকে তাদের  স্বাগত জানিয়ে শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে লখনৌ শহরের কংগ্রেসের কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয় যাত্রা  পথে  মাঝে  মধ্যেই  থামতে  দেখা  যায় তাদের। কোনো কোনো জায়গায় সংক্ষিপ্ত বক্তব্যও  দিতে হচ্ছে তাদের।

এরকমই এক জায়গায় রাহুল বলেন, আমাদের লক্ষ্য উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেসের  আদর্শে বিশ্বাস করে এমন সরকার গড়া। এই কাজের জন্যই প্রিয়াঙ্কা এবং সিন্ধিয়া  দায়িত্ব নিয়েছেন। তাই তারা শুধু লোকসভা  নয় বিধানসভা ভোট নিয়েও ভাববেন। যতক্ষণ না এখানে কংগ্রেসের সরকার তৈরি হচ্ছে, আমরা  স্বস্তিতে থাকবো না।

এই কার্যালয় থেকেই সাংবাদিক সম্মেলন করবেন প্রিয়াঙ্কা। জানা গেছে, আগামী তিন চার দিন উত্তরপ্রদেশেই থাকছেন প্রিয়াঙ্কা।  বিভিন্ন এলাকার নেতাদের সঙ্গে কথা  বলে সংগঠনের হাল  হকিকত বুঝে নেবেন তিনি। দেশের সবচেয়ে  বড় রাজ্য উত্তরপ্রদেশে ৮০ টি লোকসভা কেন্দ্র রয়েছে। তার মধ্যে  প্রায় ৪০ টি নিয়ে বৈঠক করবেন বলে জানা গেছে। এরপর দিল্লি ফিরে যাওয়ার কথা তার। তবে এই সফরে পূর্ব উত্তরপ্রদেশের কয়েকটি জায়গাতেও যেতে পারেন।

সক্রিয় রাজনীতিতে এখন এলেও প্রিয়াঙ্কা  দীর্ঘ দিন ধরেই কংগ্রেসের প্রচারে থাকেন। কিন্তু এতদিন নিজেকে গান্ধীদের খাস তালুক অমেঠী এবং রায়বরেলীতেই নিজেকে সীমাবদ্ধ করে রেখেছেন প্রিয়াঙ্কা। এবার তার পরিধি বাড়ছে।

মতামত জানান

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here