বাসাইলে ধান ক্ষেতে আগুন লাগিয়ে কৃষকের অভিনব প্রতিবাদ

29

সোহেল ভূইয়া,বাসাইল(টাঙ্গাইল): ধানের দাম কম হওয়ায় টাঙ্গাইলের বাসাইলে ধান ক্ষেতে আগুন লাগিয়ে অভিনব প্রতিবাদ করেছেন নজরুল ইসলাম খান নামের  এক কৃষক। সোমবার(১৩ মে) বিকেল পৌনে ছ’টার দিকে বাসাইল উপজেলার কাশিল ইউনিয়নের বাথুলীশাদী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। উৎপাদন খরচ বেশি, ধানে চিটা ,ধান কাটা শ্রমিকের মাত্রাতিরিক্ত মুজুরি প্রতিবাদে ওই কৃষক  নিজের পাকা ধান ক্ষেতে আগুন ধরিয়ে প্রতিবাদ জানান।

 কৃষক নজরুল ইসলাম খান বলেন, বাজারে প্রতি মণ ধানের দাম ৫০০ থেকে সাড়ে ৫০০ টাকা। অথচ এক মণ ধানের উৎপাদন খরচ এগারশ টাকার উপরে। একজন শ্রমিক এক দিনে এক থেকে দেড় মণ ধান কাটতে পারে। আর বর্তমান বাজারে একজন ধানকাটা শ্রমিকের মজুরি ৮০০ থেকে ৯০০ টাকা। সেই সাথে  শ্রমিক সঙ্কটতো লেগেই আছে। তিনি বলেন, ক্ষেতের পাকা ধান আছে কিন্তু ধানে চাল নাই শুধু চিটা আর চিটা। ধান সময়মতো ঘরে তুলতে পারছি না। তাই  উপায় না দেখে রাগে ,ক্ষোভে একজন প্রতিবাদী কৃষক হিসেবে আমি নিজের পাকা ধান ক্ষেতে আগুন লাগিয়ে দিয়েছি । এতে যদি ধানের মূল্যবৃদ্ধিসহ বাংলাদেশের কৃষকদের বিভিন্ন সুবিধার বিষয়টি সরকার বিবেচনা আসে।

কাশিল ইউপি চেয়ারম্যান মির্জা রাজিক পাকা ধান ক্ষেতে আগুন দেয়ার বিষয়ে আক্ষেপ করে বলেন,  বিষয়টি  বেদনাদায়ক । কৃষকদের ধানের ন্যায্যমল্য নিশ্চিত করতে না পারলে কৃষি শিল্প হুমকির মুখে পড়বে,যা দেশের জন্য বিরাট ক্ষতির কারন হবে।

বাসাইল উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নাজনীন আক্তার আয়োর নিউজ টুয়েন্টি ফোর ডটকমকে বলেন, এবছর কৃষি বিভাগের পরামর্শে কৃষক বাম্পার ফলন ফলিয়েছে। একসঙ্গে ধান কাটা লাগার কারনে শ্রমিকের মুজুরী বৃদ্ধি এবং শ্রমিক সংকট পড়ে যায় ।তাছাড়া সকল কৃষক একসাথেই ধান বাজারজাত করেন। ফলে ধানের মূল্য নিম্নমূখী । আমরা বর্তমানে সরকারের ৫০ ভাগ ভর্তুকীর মাধ্যমে কৃষকদের কৃষি যন্ত্রপাতি কেনার জন্য আগ্রহী করছি।

মতামত জানান

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here