বাড়ির হেঁশেলেই কাবাব বানান এই পদ্ধতিতে

57

বিশেষ প্রতিবেদন: রাজধানীসহ ছোট বড় সব শহর জুড়ে শুরু ভোজনরসিকদের নানা উৎসব। চলছে রমজান মাস এই রমজানে চকবাজারে প্রতি বছরের ন্যায় মজাদার সব কাবাব পাওয়া যাচ্ছে। আবার কোথাও সেহরীতে রেষ্টুরেন্টে হাঁসের মাংস নিয়ে তুমুল এক্সপেরিমেন্ট! বিয়ে বাড়ীতে কিংবা জন্মদিনে দুপুর বা রাতে প্রিয় জনের সঙ্গে পছন্দের পদে কামড় বসানোর সুখে বঞ্চিত হতে চায় না কেউই।

তাই শহরও তার নানা গলিঘুঁজিতে সাজিয়ে রাখে খাওয়া দাওয়ার উসব। জিভে প্রেমের এই সহজ রসায়ন বাঙালীদের  কাছে অপিরিচিতনয় মোটেও।

সেই রসায়নে ভর করেই অন্দরে শুরু হয়েছে ‘দ্য গ্রেট অওয়াধি কাবাব ফেস্টিভ্যাল। রমজানে চকবাজারেও মনসুর ও কামারুল এই দুই শেফের হাতযশেই চিংড়ি, চিকেন, মাটন, মাছ, পনির, আলু ইত্যাদির কাবাব হয়ে উঠেছে অতুলনীয়।

রমজানে যাঁরা এই ইফতারী  কাবাব উৎসবে যেতে পারছেন না, তাঁরা কি বাদই পড়ে গেলেন এমন লোভনীয় পদ থেকে? তা কেন? বরং আপনি শেফদের পরামর্শ মেনে বাড়ির হেঁশেলেও বানিয়ে ফেলতে পারেন এমন কাবার। রইল তেমনই একটি কাবাবের পদ। সরষোঁ মাহি টিক্কা

উপকরণ: নামেই মালুম এই পদ মাছের। সরষেও রয়েছে এই পদের উপকরণে। কাবাব বানানোর জন্য প্রয়োজনীয় আকারে কাটা ভেটকি মাছের ফিলে ও সরষে ছাড়াও লাগছে জল ঝরানো টক দই, ধনে গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, গরম মশলা, লেবুর রস, মাখন, আদা-রসুন পেস্ট, কাসুন্দি, সরষে গুঁড়ো, কসুরি মেথি পাউডার, সরষের তেল ও স্বাদ অনুযায়ী নুন ও লঙ্কা গুঁড়ো।

প্রণালী: প্রথমে ভেটকি মাছ ভাল করে ধুয়ে তাতে আদা-রসুন বাটা, নুন, লেবুর রস ও নুন মাখিয়ে ২০ মিনিট মতো ম্যারিনেট করে রাখুন। এর পর জল ঝরানো টক দই, ধনে গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, গরম মশলা, কসুরি মেথি, কাসুন্দি, স্বাদ অনুযায়ী লঙ্কা গুঁড়ো, মাখন, সরষের তেল মাছের গায়ে মাখিয়ে তাদের একটি শিকের মধ্যে গেঁথে নিন। এ বার তাদের তারজালিতে রেকে সেঁকে নিলেই আপনার ‘হোমমেড” সরষোঁ মাহি কাবার তৈরি হয়ে গেলো। এবার বাড়ীর সবাইকে নিয়ে খাবার টেবিলে প্লেট সাঝিয়ে ফেলুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here