পিলখানা হত্যাকাণ্ড,কেঁচো খুঁড়তে বিষধর সাপ বেরিয়ে আসতে পারেঃওবায়দুল কাদের

99

বিশেষ সংবাদদাতাঃ পিলখানা হত্যাকাণ্ড সে রহস্য উদ্ঘাটিত হলে কেঁচো খুঁড়তে বিষধর সাপ বেরিয়ে আসতে পারে।সড়কও সেতু মন্ত্রী বলেন,পিলখানা হত্যাকান্ড শুরুর আগেই খালেদা জিয়া কোথায় গেছেন, ফখরুল সাহেবেরা তাঁকে ২৪ ঘণ্টা কোথায় লুকিয়ে রেখেছিলেন,  এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে এর কোনও যোগসূত্র আছে কিনা ভেবে দেখতে হবে। বললেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

আজ মঙ্গলবার সকালে ফেনী সার্কিট হাউসে স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। পিলখানা হত্যাকাণ্ডের বিচার নিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুলের বক্তব্য প্রসঙ্গে সাংবাদিকেরা ওবায়দুল কাদেরের কাছে প্রশ্ন রাখলে জবাব দেন তিনি।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ফের ক্ষমতায় আসার পর নতুন উদ্যমে কাজ শুরু হয়েছে। মেগা প্রকল্পগুলোর কাজের গতিশীলতা এসেছে।

আগামী ১০ মার্চ ঢাকা-চট্টগ্রাম জাতীয় মহাসড়কের দ্বিতীয় কাঁচপুর সেতু প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করবেন। জুনের মধ্যে একই সড়কের দ্বিতীয় মেঘনা-গোমতী সেতুও উদ্বোধন করা হবে। এ তিনটি নতুন সেতু নির্মাণ শেষে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানজটের অবসান হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ইতিমধ্যে কর্ণফুলী টানেলের খনন কাজ শুরু হয়েছে। দক্ষিণ এশিয়ায় নদীর তলদেশে এই প্রথম কোনো টানেল নির্মাণ হচ্ছে। যমুনা নদীর তলদেশেও ১৫ কিলোমিটারের একটি টানেল নির্মাণের প্রকল্প প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ফেনী-নোয়াখালী ও বেগমগঞ্জ-লাকসাম-কুমিল্লা সড়ক চার লেনে উন্নীত করার পাশাপাশি বেগমগঞ্জ থেকে লক্ষ্মীপুর সড়কটি প্রশস্ত করা হবে। ফেনীর লালপুলে নির্মাণ হবে একটি আন্ডারপাস। ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চার লেন করা হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, সীমান্তে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আটশ’ কিলোমিটার সীমান্ত সড়ক নির্মাণ করা হবে। এরই মধ্যে খাগড়াছড়ি থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত তিনশ’ কিলোমিটার সড়কের নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে। চট্টগ্রামের মিরসরাই থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত আরও একটি মেরিন ড্রাইভ নির্মাণ করা হবে।
উপজেলা পরিষদ নির্বাচন প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি অফিশিয়ালি নির্বাচন না করলেও কোথাও কোথাও তাদের দলীয় লোকজন স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন। প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে তাদের ৪৪ জন প্রার্থী হয়েছেন।

আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের আগ পর্যন্ত দলীয় মনোনয়ন সংশোধনের সুযোগ রয়েছে। দলীয় প্রধানের কাছে প্রার্থীদের সম্পর্কে তিন ধরনের জরিপ প্রতিবেদন রয়েছে। তৃণমূল থেকে পাঠানো প্রার্থী তালিকা ওই জরিপের সঙ্গে মিলিয়ে দেখা হবে। এ মতবিনিময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন  ফেনী আসনের (সদর) সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারী, জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান, পুলিশ সুপার এসএম জাহাঙ্গীর আলম সরকার, প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here