ধোনি কতটা বিপজ্জনক বললঃআইসিসি

237

ক্রীড়া খবরঃ মহেন্দ্র সিং ধোনি স্টাম্পের পেছনে থাকলে ব্যাটসম্যানদের কতটা সতর্ক থাকতে হবে, সেটা খোদ আইসিসিই বলল! ক্রিকেট দুনিয়ার এই ক্রিকেটার  মহেন্দ্র সিং ধোনি স্টাম্পের পেছনে দাঁড়িয়ে কত কাণ্ডই না ঘটিয়েছেন। অবিশ্বাস্য সব তৎপরতায় আউট করেছেন ব্যাটসম্যানদের। এক-দুইবার নয়, অজস্রবার। মাঝে-মধ্যে ব্যাটসম্যানরা তো বটেও ভারতীয় দলে তাঁর সতীর্থেরাও বিস্মিত হয়েছেন, ধোনি কীভাবে পারেন? মাঠে কীভাবে এতটা তৎপর থাকতে পারে রক্ত-মাংসে গড়া একজন মানুষ! ওয়েলিংটনে স্টাম্পের পেছনে দাঁড়িয়ে উইকেটরক্ষক ধোনির দুর্দান্ত ক্ষমতার দেখা গতকাল পেয়েছেন নিউজিল্যান্ডের জিমি নিশাম।

এর পরপরই ধোনির তৎপরতার ব্যাপারে দুনিয়ার তাবৎ ক্রিকেটারদের সতর্ক করে বার্তা দিয়েছে খোদ আইসিসি! ধোনি যদি স্টাম্পের পেছনে থাকেন, ব্যাটসম্যানরা সাধারণ দ্বিতীয় কোনো সুযোগ পান না। কারণ তিনি ভুল তো করেন-ই না, উল্টো এমন অভাবনীয় কিছু করে বসেন, যেটি ব্যাটসম্যানের দূরতম ভাবনাতেও থাকার কথা নয়।

গতকাল ওয়েলিংটনে নিউজিল্যান্ড-ভারত সিরিজের শেষ ওয়ানডে ম্যাচে ঠিক এমনই এক পরিস্থিতির শিকার কিউই ব্যাটসম্যান নিশাম। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে রীতিমতো হইচই পড়ে গেছে নিশামকে করা ধোনির সেই রানআউটটি। প্রথমে ব্যাটিং করে ভারতের করা ২৫২ রান তাড়া করতে নেমে একপর্যায়ে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ ছিল ৬ উইকেটে ১৭৬। ঠিক সে সময়ই যুজবেন্দ্র চাহালের করা একটা বলে নিশামের বিরুদ্ধে এলবিডব্লুর আবেদন ওঠে। স্বাভাবিকভাবেই এলবির আবেদনের সময় মাঠের সকলের নজর থাকে আম্পায়ারের দিকে। কিন্তু ধোনি তো আর সবার মতো নন। বুদ্ধিদীপ্ত ধোনি নজর রেখেছিলেন বলের দিকে আর নিশামের দিকে। নিশাম এ সময় ক্রিজ ছেড়ে বাইরে রের হতেই পেছন থেকে বল হাতে নিয়ে তা ছুঁড়ে মারেন স্টাম্পের দিকে। নিশাম আউট!
ওয়েলিংটনে কালকের ওয়ানডে ম্যাচটি পুরোপুরিই ছিল ধোনিময়। স্টাম্পের পেছনের তৎপরতার সঙ্গে সঙ্গে বোলারদের উৎসাহ দেওয়া তাঁর অডিওও আলোচনায়। কতটা আন্তরিকতা, কতটা দায়বদ্ধতা নিয়ে ধোনি ক্রিকেট মাঠে আসেন, খেলেন, কাল যেন তিনি আবারও সেটি চোখে আঙুল দিয়ে সবাইকে বুঝিয়ে দিয়েছেন।
ধোনির খেলা দেখে আইসিসি টুইটারে লিখেছে, ‘নেভার লিভ ইওর ক্রিজ উইথ এমএস ধোনি বিহাইন্ড দ্য স্টাম্প।’এরপর আসলে রাঁচিতে জন্ম নেওয়া এই ক্রিকেটারের ব্যাপারে কারওরই আর কিছু বলার থাকে না, থাকতে পারে না!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here