চিকিৎসার জন্য আবার সিঙ্গাপুরে যাচ্ছেন এরশাদ।

114

রক্তে হিমোগেøাবিনের সমস্যা নিয়ে ভুগতে থাকা জাতীয় পাটির্ চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এবার যকৃতের জটিলতার চিকিৎসার জন্য আবার সিঙ্গাপুরে যাচ্ছেন।

জাতীয় পাটির্র যুগ্ম দপ্তর সম্পাদক এমএ রাজ্জাক খান সোমবার এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘স্যার এখনো অসুস্থ। তার লিভারের সমস্যার কিছুটা ইমপ্রæভ হলেও কোনো ঝুঁকি নিতে চাইছি না আমরা। খুব শিগগিরই স্যার আবারও সিঙ্গাপুরে যাবেন।’

নিবার্চনের তফসিল ঘোষণার পর দলে মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগ ওঠার মধ্যে চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে গিয়েছিলেন এরশাদ।

ভোটের আগে সিঙ্গাপুর থেকে ফেরেন তিনি। নিবার্চনে রংপুর-৩ আসনে বিজয়ী হওয়ার পর সংসদ সদস্য হিসেবে শপথও নেন তিনি। শপথ নিতে তিনি সংসদ ভবনে গিয়েছিলেন হুইল চেয়ারে।

এরপর এরশাদ সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে স্বীকৃতি নেন। তবে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূতের পদ হারান।

নিজের শারীরিক অবস্থার কথা বিবেচনা করে এরশাদ ঘোষণা দিয়েছেন, তার অবতর্মানে দলের চেয়ারম্যান হবেন তার ভাই ও দলের কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

স্ত্রী ও বিদায়ী সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদকে বাদ রেখে ভাই জিএম কাদেরকে সংসদে বিরোধীদলীয় উপনেতাও বানিয়েছেন এরশাদ।

‘গৃহপালিত বিরোধী দলের’ তকমা মুছতে এরশাদ এবার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের সঙ্গে নিবার্চন করলেও এবার মন্ত্রিসভায় তারা যোগ দেবেন না।

২২ আসনে জয় পাওয়া জাতীয় পাটির্ সংসদে ‘কাযর্কর বিরোধী দলের’ ভ‚মিকা রাখবে বলে প্রতিশ্রæতি দিচ্ছেন জিএম কাদের।

সোমবার ঢাকার বনানী কাযার্লয়ে এক অনুষ্ঠানে জাতীয় পাটির্র কো-চেয়ারম্যন জিএম কাদের বলেন, ‘জাতীয় পাটির্ কখনোই প্রশ্নবিদ্ধ বিরোধী দল হবে না। সংসদে প্রকৃত বিরোধী দলের ভূমিকা রেখেই সাধারণ মানুষের আস্থা অজর্ন করবে জাতীয় পাটির্। যাতে আগামী জাতীয় নিবার্চনের আগেই জাতীয় পাটির্ আরও শক্তিশালী দল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতে পারে।’

রাজনৈতিক সমীকরণে ‘অনেক জনপ্রিয় ও সামাজিকভাবে প্রতিষ্ঠিত’ নেতা জাতীয় পাটিের্ত যোগ দেবেন বলেও আশা করছেন কাদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here