“ক্ষমা চাইব না” বললেন প্রিয়ঙ্কা,

36

আন্তর্জাতিক খবর: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি বিকৃত করে সোশ্যাল সাইটে পোস্ট করার জন্য কারও কাছে ক্ষমা চাইবেন না বলে জানালেন হাওড়ার বিজেপি নেত্রী প্রিয়ঙ্কা শর্মা।তিনি বললেন, ‘‘আমি কোনও ভুল করিনি।” ও দিকে, মুক্তির নির্দেশ দেওয়ার পরেও কেন প্রিয়ঙ্কাকে আরও প্রায় এক দিন হাজতে পুরে রাখা হল, রাজ্য সরকারের কাছে সে ব্যাপারে কৈফিয়ত চাইল সুপ্রিম কোর্ট।

৫ দিনের হাজতবাসের পর বুধবার সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া জামিনে মুক্তি পেয়ে এক সাংবাদিক সম্মেলনে প্রিয়ঙ্কা  বলেছেন,“ ৫ দিন ধরে হাজতে আমার উপর নির্যাতন করা হয়েছে।এই রাজ্যের পুলিশের জন্যই আমাকে এই নির্যাতন সইতে হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে আইন, শৃঙ্খলা বলে কিছু নেই।”

গত কাল সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছিল, মুক্তি পাওয়ার পর লিখিত ভাবে ক্ষমা চাইতে হবে প্রিয়ঙ্কাকে। কারণ, ‘‘কারও অধিকার খর্ব হলে বাক-স্বাধীনতার অধিকারও খর্ব হতে বাধ্য।”

ও দিকে, গত কালই শীর্ষ আদালত নির্দেশ দেয় প্রিয়ঙ্কাকে অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে। তার পরেও সারা রাত তাঁকে কেন জেলে রাখা হল, তা নিয়ে রাজ্য সরকারের কৈফিয়ত তলব করেছে শীর্ষ আদালত। কৈফিয়ত না দিতে পারলে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার নোটিশ দেওয়া হবে বলেও শীর্ষ আদালতের ওই ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছে।

গত শুক্রবার বিজেপি-র যুব মোর্চার নেত্রী হাওড়ার দাশনগরের বাসিন্দা প্রিয়ঙ্কা শর্মাকে হাওড়া কমিশনারেটের পুলিশ গ্রেফতার করে। হাওড়ার এক তৃণমূল কংগ্রেস নেতা অভিযোগ করেছিলেন, প্রিয়ঙ্কা তাঁর ফেসবুক অ্যাকাউন্টে একটি ছবি পোস্ট করেছেন। সেই ছবিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি বিকৃত করা হয়েছে। মমতাকে দেখানো হয়েছে প্রিয়ঙ্কা চোপড়ার সাম্প্রতিক মেটা-গালা অনুষ্ঠানের পোশাকে।

মতামত জানান

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here