কোপা আমেরিকা : কিছুটা কঠিন গ্রুপে আর্জেন্টিনা

58

ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরোতে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হলো কোপা আমেরিকা কাপ ফুটবলের গ্রুপপর্বের ড্র। আগামী ১৪ জুন ব্রাজিল-বলিভিয়া ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠবে দক্ষিণ আমেরিকার প্রাচীনতম টুর্নামেন্ট কোপা আমেরিকার। ফাইনাল হবে ৭ জুলাই।

নিজেদের মাঠে খেলবে বলে এই আসরে সবচেয়ে ফেবারিট ভাবা হচ্ছে ব্রাজিলকে। ড্রতেও ভাগ্য তাদের পক্ষে কথা বলেছে। এ গ্রুপে গ্রুপে নেইমারদের খেলতে হবে পেরু, ভেনেজুয়েলা ও বলিভিয়ার বিপক্ষে। সাম্প্রতিক ফর্মে ব্রাজিল যে কোন দলের চেয়েই এগিয়ে। তবে ২০০৭ সালের পর আর কোপা আমেরিকার শিরোপা জুটেনি দলটির। তাই চাপ থেকেই যাচ্ছে।

আর্জেন্টিনা পড়েছে কিছুটা কঠিন গ্রুপে। ‘বি’ গ্রুপে তাদের বাকি তিন প্রতিপক্ষ—কলম্বিয়া, প্যারাগুয়ে ও অতিথি দল কাতার। ১৫ জুন কলম্বিয়ার মুখোমুখি হয়ে কোপা শিরোপা অভিযান শুরু করবে আর্জেন্টিনা। যদিও দলটির সাম্প্রতিক ফর্ম মোটেই ভালো নয়। রাশিয়া বিশ্বকাপে দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে বিদায় নিতে হয়েছে। বিশ্বকাপের পর থেকেই স্বেচ্ছায় জাতীয় দলের বাইরে আছেন সেরা তারকা লিওনেল মেসি। তবে এই আসরে তাকে দেখা যেতে পারে আবার আকাশী-সাদা জার্সিতে।

সি গ্রুপে বর্তমান চিলিকে খেলতে হবে শক্তিশালী উরুগুয়ে, ইকুয়েডর ও জাপানের বিপক্ষে। দলটির জন্য কঠিনই হবে গ্রুপ পর্ব।

এবারের কোপা আমেরিকা কাপে আমন্ত্রিত দল হিসেবে খেলবে এশিয়া দুই দেশ- কাতার ও জাপান। দক্ষিণ আমেরিকা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য দেশ ১০টি। ১২ দলের টুর্নমেন্ট করে গ্রুপ পর্ব সাজানোর সুবিধার্থে দল দুটিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। ১৯৯৩ সাল থেকে চলছে এই নিয়ম। তবে বেশির ভাগ সময়ই আমন্ত্রণ পায় মধ্য ও উত্তর আমেরিকার দেশগুলো। জাপান ১৯৯৯ সালেও এই টুর্নামেন্টে খেলেছে আমন্ত্রিত দল হিসেবে। এবার উত্তর আমেরিকা মহাদেশের কোন দলকে আমন্ত্রণ জানায়নি কোপা কর্তৃপক্ষ।

মতামত জানান

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here