আমি কিছুই দেখছিনা !

44

আদালত সংবাদঃ বিএনপি চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া আদালতে বলেছেন, ‘আমি তো কিছুই দেখছি না। আমি তো আপনাকে (বিচারক) দেখছি না। এই দেয়াল তো এর আগে ছিলো না, এখন কোথা থেকে এলো। আমি এখানে থাকবো না। আমি এখান থেকে চলে যাবো।’

আজ বৃহস্পতিবার আদালতে প্রবেশ করার পর খালেদা জিয়াকে যেখানে বসানো হয়েছে, সে বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি এসব কথা বলেন। এর পর বিচারক বলেন, ‘বসার জন্য আগামীতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এর আগে গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় হাজিরা দিতে দুপুর ১২টা ৩৫ মিনিটে কারাগার থেকে বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসায় স্থাপিত অস্থায়ী বিশেষ জজ আদালতে হাজির করা হয় খালেদা জিয়াকে। আদালতে তাকে হুইল চেয়ারে এজলাসের বামপাশে পেশকারের পেছনে নির্দিষ্ট একটি জায়গায় বসানো হয়। পরে দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটে শুনানি শুরু হয়।

এর আগে গত ১০ জানুয়ারি বিএনপি চেয়ারপারসনকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করার জন্য প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট দিয়েছিলেন আদালত।

জরুরি বিধিমালা সংযুক্ত এ মামলার অভিযোগপত্রের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট আবেদন করে মামলা বাতিল চেয়ে আবেদন করেন খালেদা জিয়া। রিট আবেদনের কারণে প্রায় ৮ বছর নিম্ন আদালতে বিচারিক কার্যক্রম বন্ধ ছিল। রিট খারিজ করে উচ্চ আদালত ২০১৬ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে দুই মাসের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন। উচ্চ আদালতের নির্দেশে ওই বছরের ৫ এপ্রিল আত্মসমর্পণ করে জামিন পান খালেদা জিয়া।

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর দুদকের উপ-পরিচালক মো. গোলাম শাহরিয়ার ১৩ জনের বিরুদ্ধে বাদী হয়ে তেজগাঁও থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলাটি তদন্ত করে ২০০৮ সালের ১৩ মে জোট সরকারের প্রভাবশালী ৯ সাবেক মন্ত্রী ও উপমন্ত্রীসহ মোট ২৪ জনের বিরুদ্ধে দুদকের উপ-পরিচালক মো. জহিরুল হুদা অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

২৪ আসামির মধ্যে সাবেক মন্ত্রী এম সাইফুর রহমান, আব্দুল মান্নান ভুইয়া, সাবেক মন্ত্রী ও জামায়াতে ইসলামীর আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী এবং খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রাহমান কোকো মারা গেছেন। মামলাটিতে বর্তমান আসামির সংখ্যা ২০ জন।

মতামত জানান

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here