হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: দীর্ঘদিন ধরে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে দালালদের উৎপাতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিলো রোগী ও তাদের স্বজনরা। হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা থেকে একাধিকবার ওইসব দালালকে পাকড়াও করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও কার্যকর হয়নি। অভিযোগ ওঠে হাসাপাতালে কর্তব্যরতদের পৃষ্ঠপোষকতায় অবস্থান করছিলো ওইসব দালালরা। অবশেষে শনিবার দুপুরে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) মো. জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সদর হাসপাতাল এলাকায় অভিযান চালিয়ে এক নারীসহ চার দালালকে আটক করে।

আটক দালালরা হলেন- হবিগঞ্জ সদর উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের মরম আলীর ছেলে শাহিন মিয়া (৩৩), বানিয়াচং উপজেলার কান্দিপাড়া গ্রামের প্রসন্ন দাশের ছেলে অসিদ দাশ (৩৩), হবিগঞ্জ শহরের কোরেশনগর এলাকার জুলমত মিয়ার ছেলে আব্দুল আলিম (৪৮) ও সদর উপজেলার আটঘরিয়া গ্রামের মৃত ছোয়াত আলীর স্ত্রী লিজা আক্তার ওরফে সিতারা (৪২)। হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইয়াছিনুল হক  আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

হাসপাতালে আসা কয়েকজন রোগীর স্বজনরা জানান, ওইসব দালাল বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালের হয়ে সারাদিন হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে আসা যাওয়া করে। তারা রোগীদের ভুল বুঝিয়ে প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে যায়। ইতোপূর্বে দালালদের খপ্পরে পড়ে প্রাণও হারিয়েছেন অনেক রোগী। এ ব্যাপারে হবিগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. সুচীন্ত চৌধুরী  বলেন, বিষয়টি তার জানা নেই। তবে ওই সব দালালরা আটক হোক তিনিও সেটা চান।