হজযাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা ৩ জুলাই থেকে শুরু হবে

ফাইল ছবি
২০১৮ সালের হজযাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও টিকাদান কার্যক্রম আগামী ৩ জুলাই থেকে শুরু হবে। সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও সিভিল সার্জনের কার্যালয়সহ বিভিন্ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে প্রত্যেক হজযাত্রীকে মেনিনজাইটিস ও ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকা দেওয়া হবে। রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর হজযাত্রীদের স্বাস্থ্যসনদও দেওয়া হবে। আশকোনা হজ অফিসের পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
ঢাকা জেলা ও মহানগরীর হজযাত্রীরা যেসব স্বাস্থ্যকেন্দ্রে টিকা ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে পারবেন, সেগুলো হলো ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ ও মিটফোর্ড হাসপাতাল, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, সরকারি কর্মচারী হাসপাতাল, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, মুগদাপাড়ার ৫০০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল, কেন্দ্রীয় হাসপাতাল রাজারবাগ, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল ও বাংলাদেশ সচিবালয় ক্লিনিক।

আগামী ৮ জুলাই থেকে আশকোনা হজ কার্যালয় মেডিকেল সেন্টারে হজযাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে। অন্যান্য সব জেলার হজযাত্রীরা বিভাগীয় শহরে সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, জেলা শহরে সংশ্লিষ্ট সিভিল সার্জনের কার্যালয়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে পারবেন। এই কেন্দ্রগুলো থেকে হজযাত্রী স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর মেনিনজাইটিস/ইনফ্লুয়েঞ্জার টিকা নিয়ে স্বাস্থ্যসনদ সংগ্রহ করবেন। কারণ বিমানবন্দরে এই স্বাস্থ্যসনদ দেখাতে হবে। এছাড়া প্রত্যেক হজযাত্রীর পাসপোর্টের পেছনে আবশ্যিকভাবে মক্কা ও মদিনার আবাসনের সঠিক ঠিকানা-সংবলিত স্টিকার আছে কি না দেখে নেবেন।

সরকারি বা বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় নিবন্ধিত হজযাত্রীর করণীয় হলো, ব্যক্তি তাঁর নিবন্ধন সনদ সংরক্ষণ করবেন। পিলগ্রিম আইডি নিশ্চিত করার জন্য হজ এজেন্সির সঙ্গে যোগাযোগ করবেন। ভিসা নিশ্চিত করার জন্য হজ এজেন্সির সঙ্গে যোগাযোগ রাখবেন। বিমান টিকিট ও ফ্লাইটের তারিখ নিশ্চিত করার জন্য হজ এজেন্সির সঙ্গে যোগাযোগ রাখবেন। নির্দিষ্ট তারিখের মধ্যেই স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং প্রয়োজনীয় ভ্যাকসিন নিতে হবে। জরুরি কোনো তথ্যের প্রয়োজন হলে ০৯৬০২৬৬৬৭০৭ নম্বরে যোগাযোগ করা যাবে।