সৈয়দপুরে অগ্নিকাণ্ডে ১১ পরিবারের সর্বস্ব পুড়ে ছাঁই

0
282
Smiley face

সৈয়দপুরের এক পল্লীতে ভয়াবহ আগুনে ১১টি পরিবারের সর্বস্ব পুড়ে গেছে। এ আগুনে পরিবারগুলোর নগদ অর্থ, মোটরসাইকেল, আসবাবপত্রসহ আনুমানিক ২০ লাখ টাকার মালামাল সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয়। আজ সোমবার সকাল ১১টায় উপজেলার ১ নম্বর কামারপুকুর ইউনিয়নের দক্ষিণ অসুরখাই সরকারপাড়ায় এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো বর্তমানে খেলা আকাশের নিচে রয়েছেন।

আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও ফায়ার সার্ভিস দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার দিন সকাল আনুমানিক সাড়ে ১০টার দিকে এ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। উল্লিখিত এলাকার রিকশাভানচালক ফিরোজুল হকের বাড়িতে বৈদ্যুতিক সটসার্কিট থেকে প্রথমে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। আগুনের লেলিহান শিখা পাশের ফিরোকুল, আনিসুল ইসলাম, খায়রুল আলম, শরিফুল ইসলাম, শরিকুল ইসলাম, ভোলা উদ্দিন, মতিয়ার রহমান, আব্দুল মজিদ, আব্দুর রউফ, আব্দুল ওহাব, আব্দুল মান্নানের বাড়িতে মুর্হুতের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় পরিবারের পুরুষ সদস্যরা অনেকেই বাড়িতে ছিলেন না। আকস্মিক এ আগুনে পরিবারগুলোর পাকা-আধাপাকা প্রায় ৩০/৩৫টি নগদ প্রায় ৪০ হাজার টাকা, ধান, চাল, আসবাবপত্র, টিভি-ফ্রিজ, মোটরসাইকেল, পানির মর্টার, মূল্যবান কাপড়-চোপড় গৃহস্থালির সবকিছুই পুড়ে ছাঁই হয়ে যায়। খবর পেয়ে সৈয়দপুর ও তারাগঞ্জ দমকল বাহিনীর সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুঁটে এসে প্রায় দেড় ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

এ ব্যাপারে দমকল বাহিনীর সৈয়দপুর স্টেশন অফিসার মো. মেরাজুল ইসলাম জানান, আগুনে খবর পেয়ে তারা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। তিনি আরো জানান, আগুনে পরিবারগুলোর ২০ লাখ টাকারও বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয়।

এদিকে অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে কামারপুকুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. রেজাউল করিম লোকমান ঘটনাস্থলে ছুঁটে যান। এ সময় তিনি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর খোঁজ-খবর নেন এবং যথাসাধ্য সব ধরনের সাহায্য-সহযেগিতার আশ্বাস দেন।

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো. মোফাখ-খারুল ইসলাম জানান, উপজেলা পরিষদের অপ্রত্যাশিত খাত থেকে আগুনের ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিটি পরিবারকে তাৎক্ষণিকভাবে ২৫ কেজি করে চাল এবং নগদ ২ হাজার টাকা করে প্রদানের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY