সুপার লিগের স্বপ্ন জিইয়ে রাখল মাশরাফিরা

0
145
print
মিরপুরে কলাবাগান ‘ডার্বি’ জমল না! প্রথম দিনে বৃষ্টিতে ভেস্তে যাওয়া ম্যাচ গড়িয়েছিল রিজার্ভ ডেতে। তবে রিজার্ভ ডেতেও পিছু ছাড়েনি বৃষ্টি। ম্যাচ মাঠে গড়ালেও শেষ পর্যন্ত নিষ্পত্তি হয়েছে বৃষ্টি আইনে। তাতে ২৯ রানে জয়ী কলাবাগান ক্রীড়া চক্র। এ জয়ে সুপার লিগে খেলার স্বপ্ন জিইয়ে থাকল মাশরাফিবাহিনীর। অবশ্য জয়ের পরও শেষ দিনে তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে কলাবাগানকে। সুপার লিগে খেলার জন্য শেষ রাউন্ডের শেষ দিনে হারতেই হবে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সকে।

আরও একবার ব্যাটিংয়ে আলো ছড়ালেন হাসানুজ্জামান। মোহামেডানের বিপক্ষে খেলেছিলেন ৫৩ বলে ৯৫ রানের ঝড়ো ইনিংস। গতকাল তার ব্যাট থেকে এসেছে ৫৭ বলে ৪৭ রান। তাসামুল করেছেন ১৭। তবে বৃষ্টি নামার আগে ১৫ রানে অপরাজিত ছিলেন পরশ ডোগরা।

মামুলি লক্ষ্য। জয়ের জন্য কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের দরকার ছিল ১২৯ রান। বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে ২৩ ওভারে ৪ উইকেটে ৯১ রান তুলে ফেলে কলাবাগান। এরপর অবশ্য খেলা আর মাঠেই গড়ায়নি। বৃষ্টি আইনে মাশরাফিদের সামনে জয়ের লক্ষ্য দেওয়া হয়েছিল ২৩ ওভারে ৬৩ রান।

এর আগে প্রথম দিনে বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে ৪ উইকেটে ৩৫ রান তুলেছিল কলাবাগান ক্রিকেট একাডেমি। গতকাল রিজার্ভ ডেতে ইনিংসের শুরুতেই তাপসের উইকেট হারায়। ষষ্ঠ উইকেটে মেহেদি হাসান মিরাজ ও নুরুজ্জামান জুটি দলীয় স্কোরকার্ডে জমা করেন ৪০ রান। ২২ রান করা মিরাজকে ফিরিয়ে এই জুটি ভাঙেন অফস্পিনার শরিফুল্লাহ। সাত নাম্বারে ব্যাটিংয়ে নামা নুরুজ্জামানের ৬৬ বলে ৪২ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস কলাবাগান ক্রিকেট একাডেমিকে ১২৮ রানের ঘরে পৌঁছে দেয়। ২৮ রানে ৩ উইকেট পাওয়া আব্দুর রাজ্জাক হয়েছেন ম্যাচসেরা।

কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি। শুরুতেই তারা ওপেনার জসিমুদ্দিনের উইকেট হারায়। তবে দলকে সঠিক পথেই রাখেন হাসানুজ্জামান। একাডেমি হারলেও দারুণ বোলিং করেছেন পেসার আবু জায়েদ। ৭ ওভারে ১৪ রান দিয়ে নিয়েছেন ২ উইকেট।

LEAVE A REPLY