সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন চায় ভারত: জাপা

চার দিনের ভারত সফরে দেশটির শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে আলাপের বিষয়ে জাতীয় পার্টির (জাপা) পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সফর ফলপ্রসূ হয়েছে। ভারতের নেতারা বলেছেন, তারা বাংলাদেশে সবসময়ই সব দলের অংশগ্রহণে একটি সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন প্রত্যাশা করেন। বৃহস্পতিবার (২৬ জুলাই) সকালে রাজধানীর বনানীতে জাপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এ বিষয়টি তুলে ধরেন পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার। সংবাদ সম্মেলনটি ডেকেছিলেন পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তিনি উপস্থিত না থাকতে পারলেও এতে ছিলেন দলের কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু প্রমুখ।

গত ২২ জুলাই হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বে দিল্লি সফরে যান জাপা নেতারা। সফরকালে তারা দেখা করেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং, পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের সঙ্গে।

এ বিষয়ে রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, গত ১৭ জুলাই বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা দিল্লি সফরের আমন্ত্রণ জানান পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে। তারই প্রেক্ষিতে ওই সফর। সফরটি অত্যন্ত ফলপ্রসূ।

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার সঙ্গে বৈঠকের বিষয়টি তুরে ধরে জাপা মহাসচিব বলেন, ভারতের নেতারা বলেছেন- তাদের সরকার ও জনগণ বাংলাদেশের সঙ্গে বিরাজমান সুসম্পর্ক আরও সুদৃঢ় দেখতে চান। তারা একান্তভাবে প্রত্যাশা করেছেন যেন বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক পরিবেশ বজায় থাকে। ভারত সবসময়ই বাংলাদেশে সব দলের অংশগ্রহণে একটি সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন প্রত্যাশা করে বলেও জানান দেশটির নেতারা।

সংসদে জাপার ভূমিকা নিয়ে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য তুলে ধরে রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, জাতীয় পার্টি বিরোধী দলে থেকেও সরকারে দায়িত্ব পালন করে বিরল দৃষ্টান্ত গড়েছে বলে উল্লেখ করেছেন সুষমা স্বরাজ। তিনি জানিয়েছেন- বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক ও সাংবিধানিক ধারা অব্যাহত রাখতে তাদের নৈতিক সমর্থন সবসময় অব্যাহত থাকবে।