শাকিব খানকে মানহানি ও প্রতারণার মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়ায় ম্যাজিস্ট্রেটের আদেশের বিরুদ্ধে জেলা ও দায়রা জজ আদালতে রিভিশন করেছেন মামলার বাদী ইজাজুল মিয়া।
হবিগঞ্জের জেলা ও দায়রা জজ আমজাদ হোসেন রিভিশন গ্রহণ করে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের মূল নথি তলব করেছেন।
রোববার রিভিশন শুনানি শেষে বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ত্রিলোক কান্তি চৌধুরী বিজন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
‘রাজনীতি’ সিনেমায় চিত্রনায়ক শাকিব খান চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসকে একটি মোবাইল ফোনের নাম্বার বলেছিলেন। ওই মোবাইল ফোনের মালিক হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ের সিএনজি চালক ইজাজুল মিয়া।
এরপর থেকে ইজাজুল মিয়াকে শাকিব খান ভেবে অসংখ্য ভক্ত ফোন করতে থাকেন। একপর্যায়ে তা বিড়ম্বনার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। অবশেষে চিত্রনায়ক শাকিব খানসহ অন্যদের বিরুদ্ধে মামলা করেন ইজাজুল মিয়া।
মামলাটি হবিগঞ্জের গোয়েন্দা পুলিশের ওসি শাহ আলম তদন্ত করেন। তদন্ত শেষে চলচ্চিত্রটির পরিচালক বুলবুল বিশ্বাস ও প্রযোজক আশফাক আহমদকে অভিযুক্ত করে প্রতিবেদন দেওয়া হয়।
নায়ক শাকিব খানকে মামলার দায় থেকে অব্যাহতির আবেদন করা হয়। সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সম্পা জাহান পুলিশের প্রতিবেদন গ্রহণ করে শাকিব খানকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেন। ওই আদেশের বিরুদ্ধে রোববার রিভিশন মোকাদ্দমা দায়ের করা হয়।