‘বড় ছেলে’ নাটকের পর থেকে বদলে গেছেন মেহজাবিন। এরপর ‘ঘরে দাঁড়ানোর গল্প’সহ আরো কিছু নাটকে তার অভিনয় দর্শকদের নাড়া দিয়েছে। গেল ঈদের নাটকের কাজ করেও নতুন সাফল্য পেয়েছেন এই লাক্স তারকা। গত ঈদের অনুষ্ঠানমালায় মেহজাবিন অভিনীত বেশকিছু নাটক প্রচারিত হয়েছে। এরমধ্যে দুটি নাটক-টেলিফিল্মে অভিনয়ের জন্য বেশি সাড়া পাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন এই অভিনেত্রী। একটি মিজানুর রহমান আরিয়ানের টেলিফিল্ম ‘বুকের বা পাশে’ এবং অন্যটি আশফাক নিপুণের ‘ফেরার পথ নেই’। এগুলো এখন ইউটিউবেও দেখা যাচ্ছে। দুটিতেই তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন আফরান নিশো। মেহজাবিন বলেন, ‘ঈদে আমার অভিনীত বেশ কয়েকটি ভালো ভালো গল্পের নাটক-টেলিফিল্ম প্রচার হয়েছে। তবে অন্যান্য নাটক-টেলিফিল্মের তুলনায় বুকের বা পাশে এবং ফেরার পথ নেই নাটকে অভিনয়ের জন্য আমি দর্শকদের বেশি সাড়া পাচ্ছি। যদিও এবার যে ক’টি কাজ করেছি প্রতিটিরই গল্প ভালো ছিলো এবং চরিত্রও ছিলো অসাধারণ। তারপরও দর্শকের ভালোলাগার ওপরই নির্ভর করে সবকিছু। যে কারণে তাদের ভালোলাগার কারণে আমি এ দুটির জন্য বেশি সাড়া পাচ্ছি। প্রতিদিনই আমি এই দুটি কাজের জন্য নতুন নতুন প্রশংসা বাক্যের মুখোমুখি হচ্ছি। দর্শকের ভালোবাসায় আমি সত্যিই মুগ্ধ। দুজন নির্মাতার প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা।’ মেহজাবিন বিশ্বাস করেন শুধু বাংলাদেশেই নয়, বিশ্বের যতো দেশে বাংলা ভাষাভাষী আছেন, তারা সবাই বাংলাদেশের নাটক উপভোগ করেন। বাংলাদেশের নাটক দেখতে ভালোবাসেন। আর তাই দর্শকের ভালোলাগার কথা বিবেচনা করেই তিনি চেষ্টা করেন সবসময়ই ভালো ভালো গল্পের নাটকে অভিনয় করতে। এদিকে ঈদের পর মেহজাবিন অভিনয়ে ফিরেছেন। এরইমধ্যে তিনি অপূর্বর বিপরীতে ‘বেঁচে থাকুক ভালোবাসা’ এবং আফরান নিশোর বিপরীতে ‘রং বদল’ নাটকের কাজ শেষ করেছেন। দুটি নাটকই নির্মাণ করেছেন মহিদুল মহিম। আগামী ঈদে মেহজাবিন অভিনীত নাটক দুটি প্রচারের কথা রয়েছে।