রহমত, বরকত নাজাতের বার্তা নিয়ে মুসলিম বিশ্বের ঘরে ঘরে আগত মাহে রমজানের এখন শুরু। আল্লাহর নৈকট্য লাভের আশায় সারাদিন রোজা রেখে পরিবারের সকলে মিলে এক সঙ্গে ইফতারের আনন্দই যেন আলাদা। কিন্তু যারা পবিবার পরিজনের সুখের খোঁজে নিজ গৃহ ছেড়ে আজ পরবাসী, তাদের ইফতারীর অতীত আনন্দ দায়ক না হলেও বর্তমানে মালয়েশিয়ায় প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের কল্যেণে মালয়েশিয়া প্রবাসীরাও উপভোগ করছেন ইফতারে আনন্দ। দোকানীদের ব্যস্ততা আর বাহারী সব ইফতার আয়োজন দেখে মনে হতে পারে এই দৃশ্য দেশের ঢাকার। পুরান ঢাকার রাস্তা গুলোতে যেভাবে ঐতিহ্যবাহী ইফতার সাজান ব্যবসায়ীরা, একই ভাবে মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি সব ঐতিহ্যবাহী ইফতার সাজান প্রবাসীরা।

বৈধ অবৈধ মিলিয়ে বর্তমানে মালয়েশিয়ায় বসবাস করছেন কয়েক লক্ষ বাংলাদেশি। রোজার মাসে প্রতিদিনই কুয়ালালামপুরের কোতারায়া, বুকিত বিনতাং সহ মালয়েশিয়ার প্রবাসী বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকা গুলোতে বসে ইফতারী বাজার। শুধু প্রবাসীরাই নয়, বাংলাদেশি দোকানগুলোতে ভিড় জমায় বিদেশীরাও। বাংলাদেশি বাহারী ও ঐতিহ্যবাহী সব খাবারের টানেই তারা ছুটে বেড়ান দোকানে দোকানে।

এসময় বাংলাদেশি রেষ্টুরেন্ট গুলোতে চলে ইফতারী তৈরীর মহা আয়োজন, সকলে ইফতারী সামনে নিয়ে অপেক্ষা করেন আজানের, দেখে মনে হয় যেন এক একটি পরিবার। অন্যান্য সময় গুলোতে পরিবার পরিজনহীন নিজেকে একা একা মনে হলেও মাহে রমজানের এই সময়টুকুতে মালয়েশিয়া প্রবাসীরা কিছুক্ষণ সময়ের জন্যে ভুলে যান পরিজনহীন একা একা ইফতার খাবার কষ্টটুকু।