মারামারি বন্ধ করতে দুজনকেই ফোন করেছি

নারায়ণগঞ্জে হকার উচ্ছেদের সময় সংসদ সদস্য শামীম ওসমান ও নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) মেয়র সেলিনা হায়াত আইভীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘নারায়ণগঞ্জ পুলিশের এসপি আমাকে যখন ঘটনা জানান তখন দুজনকেই ফোন করে বলেছি অনভিপ্রেত ঘটনা থামাতে। দুই পক্ষকেই ডেকে কথা বলে বিষয়টি খতিয়ে দেখব। মারামারি বন্ধ করতেই ফোন করেছি। বলেছি, এই প্র্যাকটিসটা বন্ধ করতে হবে।’

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে গতকাল বুধবার সকালে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ বড় দল। এখানে সমস্যা তো মাঝেমধ্যে হয়। তাঁদের এই সমস্যা সিটি করপোরেশনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশও নষ্ট করেনি, আমাদের বিজয়েও বাধা হয়নি, ভোট ব্যাংকেরও ক্ষতি করেনি। তবে যে ঘটনা ঘটেছে তা অনভিপ্রেত এবং অনাকাঙ্ক্ষিত। দলের অভ্যন্তরীণ কলহ জনসমক্ষে আসা খুবই খারাপ। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এ বিষয়ে আমার কথা হয়েছে।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জের ঘটনার তদন্ত চলছে। যারা জনসমক্ষে ভায়োলেন্সের মাধ্যমে পার্টির ভাবমূর্তি নষ্ট করেছে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেব। আর ওখানে অস্ত্রের ব্যবহার বা গোলাগুলি হয়ে থাকলে সে বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে জানিয়েছি। তিনি খোঁজখবর নিচ্ছেন, তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবেন।’