ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লি থেকে ১১৪ কিলোমিটার দূরে হরিয়ানা রাজ্যের মেওয়াটে আটজন মিলে এক গর্ভবতী ছাগলকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। পাশবিক অত্যাচারের এক পর্যায়ে ছাগলটি মারা যায়। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জিনিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২৬ জুলাই ছাগলটির মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। এরপর ছাগলটির মালিক আট জনের বিরুদ্ধে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ উঠেছে, বেশ কিছুদিন ধরেই ওই ছাগলের পেছনে লেগেছিল ওই আটজন। ছাগলটির মালিক আসলু এ বিষয়ে তাদের সাবধানও করেন।

স্থানীয় এক ব্যক্তি জানান, আসলুর বাড়ি থেকে ছাগলটিকে চুরি করে নিয়ে যান অভিযুক্তরা। পরে রাতের অন্ধকারে একটি পরিত্যক্ত জায়গায় আটজন মিলে ছাগলটিকে ধর্ষণ করে। পরে তাদের স্থানীয়রা হাতেনাতে ধরে ফেলে। আসলুর অভিযোগ, ছাগলটির সঙ্গে এর আগেও এ ধরনের কাজ করার চেষ্টা করেছিল অভিযুক্ত ব্যক্তিরা।

এদিকে ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত আটজনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। ইতোমধ্যে মৃত ছাগলটির পরীক্ষা করা হচ্ছে। এদিকে ঘটনাটির তদন্তে নেমেছে পুলিশ।