ব্রিটেনে অর্ধেকের বেশি নারী কর্মস্থলে যৌন হয়রানির শিকার

0
163
print
ব্রিটেনে কর্মস্থলে অর্ধেকের বেশি নারী যৌন হয়রানির শিকার হয়ে থাকে। প্রায় ২ হাজারেরও বেশি মানুষের উপর চালানো বিবিসির জরিপে উঠে এসেছে যৌন হয়রানির শিকার হওয়া ৬৩ শতাংশ নারী বিষয়টি গোপন রেখেছেন।
হলিউড প্রযোজক হার্ভি ওয়াইনস্টেইনের যৌন কেলেঙ্কারির খবর প্রকাশিত হওয়ার পরে সবাই #মি_টু হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে নিজেদের যৌন হয়রানির খবর শেয়ার করা শুরু করলে এই জরিপ আয়োজন করে বিবিসি রেডিও ফাইভ। অ্যাঞ্জেলিনা জোলি, গোয়াইন্থ প্যালট্রো ও রোজ ম্যাকগোয়ানসহ ২০ জনের বেশি নারী তার বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলেন। ওয়াইনস্টেইনের দাবি, তিনি কারো ইচ্ছার বিরুদ্ধে কারো সঙ্গে যৌনসম্পর্ক স্থাপন করেননি।
রেডিও ফাইভের জরিপে ২ হাজার ৩১ জন নারী ও পুরুষ অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে ৫৩ শতাংশ নারী যৌন হয়রানির শিকার হওয়ার কথা বলেছে, ২০ শতাংশ পুরুষও বলেছে তারা যৌন হয়রানির শিকার হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে যৌন নিপীড়ন, অশালীন মন্তব্যের শিকার হয়েছেন। জরিপে অংশ নেয়া ৪ ভাগের ১ ভাগ জানিয়েছেন, তারা কৌতুক বা ঠাট্টার স্বরূপে যৌন হয়রানির শিকার হয়েছে, ৭ জনে ১ জন জানিয়েছে তারা সংবেদনশীল অঙ্গে অশোভন স্পর্শের শিকার হয়েছেন।
প্রায় ৩০ শতাংশ নারী বস বা জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার হাতে যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন, পুরুষদের মধ্যে সংখ্যাটা ১২ শতাংশ। নিপীড়নের শিকার হওয়া ১০ জনের ১ জন নারী কর্মস্থল বা পড়ার জায়গা বদল করতে বাধ্য হয়েছে। কেমব্রিজের সারাহ কিলকোর বলেন, তিনি পড়াশোনা করার সময় দুইবার যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছেন। একবার স্কুল শিক্ষকের হাতে আরেকবার কলেজ শিক্ষকের হাতে। বিবিসি।

LEAVE A REPLY