বোধনের মধ্য দিয়ে শুরু হলো শারদীয় দুর্গোৎসব

0
251
print
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দেবী বোধনের মধ্যদিয়ে শুরু হয় পূজার আনুষ্ঠানিকতা। আর এতে করে  বাঙালির সমাজ-সংস্কৃতি আর ঐতিহ্যের চিরচেনা রূপটি দেবী দুর্গার মধ্যে ফুটে ওঠে। অসুর বধের জন্যই দেবীর আগমন মর্ত্যে। পৃথিবীর শান্তি সমৃদ্ধি আর কল্যাণে ভক্তরা মেতে উঠেন দশভুজা দুর্গার আরাধনায়।

এবার রাজধানীতে মোট পূজা হচ্ছে ২২৯টি। আর সারাদেশে ২৯ হাজার ৩৯৫টি। যা গতবারের চেয়ে ৩২১টি বেশি।

হিন্দু ধর্মশাস্ত্র মার্কণ্ডেয় পুরাণের অংশ চণ্ডী— আর এ চণ্ডীতেই বর্ণিত হয়েছে দেবী দুর্গার মহিশাসুর বধ কাহিনী। দেবকুলে মাঘ থেকে আষাঢ়- এ ছয় মাস দিন যাকে বলে উত্তরায়ণ, আর শ্রাবণ থেকে পৌষ এ সময় রাত যা দক্ষিণায়ন। লংকার রাজা রাবণকে বধের জন্য রামচন্দ্র দক্ষিণায়ন সময়কাল, আশ্বিন মাসে দেবী দুর্গার আহ্বান করে।

মূলতঃ ষষ্ঠীতে দেবী বোধনের মধ্য দিয়েই শুরু হয় দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা। কিন্তু এবার তিথি অনুযায়ী পঞ্চমীতে হয়েছে দেবী বোধন। এর মধ্য দিয়েই দেবী দুর্গাকে আহ্বান করা হয়েছে মর্ত্যলোকে। শুক্রবার সকালে হয়েছে দেবীর ষষ্ঠাদি কল্পারম্ভ।

শনিবার সপ্তমীতে নবপত্রিকা প্রবেশ, মূল পূজা শুরু হবে মণ্ডপে। রোববার অষ্টমী, এদিন রামকৃষ্ণ মিশনে হবে কুমারী পূজা। সোমবার নবমীতে আরতি আর মঙ্গলবার দশমীতে দেবী বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে শারদীয় দুর্গোৎসব।

LEAVE A REPLY