বারবার একই ভুলের কারণ জানেন না মাশরাফি

    দেয়ালে যখন সবার পিঠ ঠেকে যায়, তখন তিনিই হাসিমুখে সবাইকে লড়াই করার প্রেরণা জোগান। তার প্রেরণাতেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে টেস্টে হোয়াইটওয়াশ হয়ে ওয়ানডেতে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। এই ম্যাশের নেতৃত্বেই দ্বিতীয় ওয়ানডে প্রায় জিতেই গিয়েছিল টাইগাররা। কিন্তু সহজ ম্যাচ কঠিন করে ৩ রানে দলকে হারিয়ে দিল প্রতিষ্ঠিত ব্যাটসম্যানরা! বারবার একই ভুল! কী কারণ? মানসিক না টেকনিক্যাল? জবাবে অসহায় মাশরাফি।

    হাতের মুঠোয় থাকা ম্যাচটি জিতলেই সিরিজ নিশ্চিত। প্রায় অবিশ্বাস্য হার। চরম আত্মবিশ্বাসী মাশরাফিও এদিন হতাশ। সাংবাদিকদের বললেন, ‘এই ধরনের ম্যাচ হারা তো অবশ্যই হতাশার। শেষ ১৩ বলে ১৪ রান লাগবে, ৬ উইকেট হাতে। ওখন থেকে ম্যাচ হারার কথা নয়। আর এমন না যে এটা প্রথমবার হলো। সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েকবার হলো। এটাই বেশি হতাশার। আমরা বারবার ভুল থেকে হয়ত শিখছি না। সহজেই শেষ করা উচিত ছিল এই ম্যাচ।’

    গায়ানায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডে জিততে একসময় বাংলাদেশের দরকার ছিল ১৩ বলে ১৪ রান। হাতে উইকেট ছিল ৬টি। ক্রিজে নামকরা ব্যাটসম্যান। কিন্তু যা ঘটল, সেটাকে ২০১২ এশিয়া কাপের ফাইনাল, ২০১৬ এশিয়া কাপের ফাইনাল, ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের কাছে হারের সঙ্গেই তুলনা করা যায়। যার বেশিরভাগ হারেই জড়িত মুশফিকের নাম। কিন্তু কেন বারবার একই ভুল করছে ব্যাটসম্যানরা।

    হতাশ মাশরাফি বললেন, ‘এখানে আসলে কী বলব? টেকনিক্যাল না মেন্টালি, ব্যাখ্যা করা কঠিন। এমন যদি হতো যে ১২ বলে ২০ রান লাগবে, অন্য কথা ছিল। কিন্তু ১৩ বলে যখন ১৪ লাগবে, তখন টেকনিক্যাল বা মেন্টাল কোনোটিই বলা কঠিন। তবে সত্যিকার অর্থে বললে, আমরা এই ধরনের ভুল বারবার করছি। এই ধরনের পরিস্থিতিতে হয়ত নার্ভ আরও সহজ রাখা যেত। বল প্রতি রান দরকার ছিল। এক এক করে রান নিয়েই শেষ করা যেত, যেটা আমরা করতে পারিনি।’