বাদ পড়া ভোটারদের নিবন্ধন ২৫ নভেম্বর শুরু

0
163
print
  • বয়স ১৮ হওয়া সত্ত্বেও যারা এখনও ভোটার হতে পারেননি তাদেরকে ভোটার হওয়ার সুযোগ দিচ্ছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এবার তথ্য সংগ্রহের জন্য বাড়ি বাড়ি যাবে না তথ্য সংগ্রহকারীরা। বাদ পড়ারা ২৫ নভেম্বর থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত নিজ উপজেলায় গিয়ে নিবন্ধন করতে পারবেন।
এ বিষয়ে ইসি সচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ জানান, বাদ পড়াদের ভোটার হওয়ার সুযোগ দিতেই ২৫ নভেম্বর থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত নিবন্ধনের এ সুযোগ দেওয়া হয়েছে। ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারিতে যারা ভোটারযোগ্য হবেন তাদের জন্য এ সুযোগ।

তিনি জানান, কমিশন মনে করছে গেল বছরে নিবন্ধনের জন্য তথ্য সংগ্রহের সময় উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নাগরিক সাড়া দেয়নি। তাই এবার তাদের তালিকাভুক্ত করা হবে। আর কেউ নিবন্ধন করতে চাইলে তাকে সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাচন অফিসে আসতে হবে। ২ জানুয়ারি খসড়া প্রকাশের সময় তাদের নামও থাকবে ভোটার তালিকায়।

সচিব আরো জানান, আগামী বছরের যেকোনো সময়ে নতুন করে আবারও ভোটার তালিকা হালনাগাদের কাজ করার পরিকল্পনা রয়েছে কমিশনের। গত বছর মে থেকে নভেম্বর পর্যন্ত ভোটারযোগ্যদের পাশাপাশি কম বয়সীদেরও (১৫-১৭ বছর) তথ্য নেয় ইসি। এ সময় বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহকারীরা ফরম পূরণ করে নেয়।

ইসির উপসচিব নুরুজ্জামান তালুকদার জানান, বিশেষ সুযোগ দেওয়ার কারণে এবার বাড়ি বাড়ি যাচ্ছে না তথ্য সংগ্রহকারীরা। এক্ষেত্রে নির্ধারিত তিন সপ্তাহের মধ্যে ভোটার হতে হলে যোগ্য নাগরিকদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে নিজ নিজ উপজেলা নির্বাচন অফিসে যেতে হবে।

এই হালনাগাদে যাদের জন্ম ১ জানুয়ারি ১৯৯৯ বা তার পূর্বে অথচ ভোটার তালিকা হালনাগাদ ২০১৫-২০১৬ কার্যক্রমে নিবন্ধন করা হয়নি তাদেরকে নিবন্ধিত করে আগামী ২ জানুয়ারি খসড়া ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে প্রথম ছবিযুক্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ শুরু হয়। সে সময় ৮ কোটি ১০ লাখের বেশি নাগরিককে তালিকাভুক্ত করে জাতীয় পরিচয়পত্রও দেওয়া হয়। ইতোমধ্যে ২০১০, ২০১২, ২০১৪ ও ২০১৬ সালে ভোটার তালিকা প্রকাশ করে ইসি।

সর্বশেষ হালনাগাদ অনুযায়ী দেশের মোট ভোটার সংখ্যা ৯ কোটি ৯৮ লাখ ৯৮ হাজার ৫৫৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৫ কোটি ৩ লাখ ২০ হাজার ৩৬২ জন এবং নারী ভোটার ৪ কোটি ৯৫ লাখ ৭৮ হাজার ১৯১ জন।

LEAVE A REPLY