৩৩তম দেশ হিসেবে বাংলাদেশ পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করতে যাচ্ছে। মহাকাশে আমরা স্যাটেলাইট পাঠিয়েছি। আমরা উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছি। বাঙালিকে কেউ দাবিয়ে রাখতে পারবে না বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ শনিবার দুপুরে আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে পাবনার রুপপুরে পরমাণু বিদ্যুকেন্দ্রে কাজের উদ্বোধন পর সুধিসমাবেশে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বিভিন্ন ক্ষেত্রে দেশের উন্নয়নের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী এসময় বলেন, বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। বিশ্বে আমরা মর্যাদাপূর্ণ জাতি হিসেব চলবো। কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়, সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব আমাদের এই নীতিতে চলতে হবে। আমরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি, এগিয়ে নিয়ে যাবো। আমরা উন্নয়নশীল দেশ হয়েছি। ২০৪১ সালের মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ায় উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হবে বাংলাদেশ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ হবে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত। জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর এটি স্বপ্ন ছিল। আমরা তার স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথে চলেছি। তিনি বলেন, দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য ২০২১ সাল পর্যন্ত আমাদের যেমন সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা রয়েছে।তেমনি ২০২১ থেকে ২০৪১ সাল পর্যন্তও আমাদের পরিকল্পনা আছে। এই পরিকল্পনা অনুযায়ী দেশকে আমরা এগিয়ে নিয়ে যাবো।

পারমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্রের নিরাপত্তার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই বিদ্যুকেন্দ্রর নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য আমাদের পুলিশ, আর্মি বাহিনীসহ সব বাহিনীই কাজ করবে। আমরা পরিকল্পিতভাবেই এই বিদ্যুৎ প্রকল্প হাতে নিয়েছি। এখানে রাশিয়ার প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। যেকোনও দুর্যোগ মোকাবেলায় রাশিয়া আমাদের পাশে থাকবে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লদিমির পুতিনের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। যে কোনও সমস্যায় তিনি আমাদের পাশের থাকার কথা জানিয়েছেন।