চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে মরণব্যাধী ক্যান্সারে আক্রান্ত সন্তানকে বাচাঁনোর আকুল আকুতি জানিয়েছেন এক অসহায় পিতা। পরিবারের একমাত্র ছেলে মো. জাহিদ হাসানকে (২০) ক্যান্সারের ব্যয়বহুল চিকিৎসা করাতে গিয়ে এখন বসত ভিটা ছাড়া আর কিছুই অবশিষ্ট নেই উপজেলার জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের ইমামপুর গ্রামের হতভাগ্য পিতা মো. নুরুল আফছারের। টাকার অভাবে বিনা চিকিৎসায় তিল তিল করে মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যাওয়া সন্তানকে বাঁচাতে তিনি এখন সমাজের বিত্তবান সহ সকলের একান্ত সহযোগীতা কামনা করেছেন।
ক্যান্সারে আক্রান্ত মো. জাহিদ হাসানের বাবা মো. নুরুল আফছার আমার সংবাদকে বলেন, গত বছরের আগস্ট মাসে আমার ছেলের মলদ্বারে ক্যান্সার ধরা পড়ে। ক্যান্সার ধরা পড়ার পর ২৮ বার রেডিওথেরাপি, ৬ বার কেমোথেরাপি ও অপারেশন বাবদ এই পর্যন্ত আমার প্রায় ১৪ লাখ টাকা খরচ হয়ে গেছে। এই বিপুল খরচ বহন করতে গিয়ে আমি জমানো নগদ টাকা ছাড়াও ৮ গন্ডা জমি বিক্রি করে দিয়েছি। এখন নিজের বসতভিটা ছাড়া আর কিছুই নেই।

নুরুল আফছার আরও বলেন, বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা বলেছেন; আমার ছেলের পরবর্তী অপারেশনের জন্য আরো ৮ লাখ টাকা লাগবে। কিন্তু আমিতো এখন নিঃস্ব। তাই আমি সন্তানের জীবন রক্ষার্থে সকলের একান্ত সহযোগীতা কামনা করছি।

জাহিদ হাসানের জন্য সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা:- মোঃ ফারুক হোসেন, হিসাব নং ঝগঝঅ৮৪৫, ইসলামী ব্যাংক, বারইয়ার হাট শাখা। বিকাশ একাউন্ট নম্বরঃ ০১৮১৯৫৪৫০৭৯ (পার্সোনাল)।