ফের প্রেসিডেন্ট হতে যাচ্ছেন পুতিন!

53
Smiley face

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী ১৮ মার্চ। নির্বাচনে চতুর্থবারের মতো অংশ নিচ্ছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এবারের নির্বাচনে পুতিনের বিপক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন সাতজন প্রার্থী।

তবে নিজের পক্ষে ৮০ শতাংশ সমর্থন নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিদের থেকে বহু এগিয়ে রয়েছেন পুতিন। এ ছাড়া পুতিনের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি বিরোধী দলীয় নেতা অ্যালেক্সই নাভালনির বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকায় তাকে নির্বাচনে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আর এ কারণে চতুর্থবারের মতো পুতিনের জয় সুনিশ্চিত বলেই ধরে নেওয়া হচ্ছে।

মস্কোর নির্বাচন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, আগামী নির্বাচনে পুতিনের বিপক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন সাতজন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পুতিনসহ আটজনের নাম নিবন্ধন করেছেন তারা।

এদিকে নির্বাচনে নিষিদ্ধ হওয়ার ব্যাপারে ৪১ বছর বয়সী বিরোধী দলীয় নেতা নাভালনি বলেছেন, রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন তিনি।

৬৫ বছর বয়সী রাশিয়ান নেতা পুতিন ২০০০-২০০৮ সাল পর্যন্ত দুই বার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্বপালন করেন। এর পর যদিও বিভিন্ন সময় তিনি বলতেন, তার দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক সহকর্মী দিমিত্রি মেদভেদেব পরবর্তী সময়ে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। কিন্তু ২০১২ সালের নির্বাচনে অংশ নিয়ে ফের রুশ প্রেসিডেন্ট হিসেবে জয়লাভ করেন পুতিন।

২০১২ সালের নির্বাচনের আগ পর্যন্ত রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের মেয়াদ ছিল চার বছর। কিন্তু ক্ষমতায় বসার পর পুতিন সেটিকে বাড়িয়ে ছয় বছর করেন।

আগামী নির্বাচনে বর্তমান প্রেসিডেন্ট পুতিনের বিপক্ষে লড়বেন ৩৬ বছর বয়সী টিভি উপস্থাপক, সাংবাদিক সেনিয়া সবচাক।এই টিভি স্টার দেশটিতে স্বাধীন পরিবর্তন আনতে চান।

এ ছাড়াও কমিউনিস্ট পার্টির হয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন পাভেল গ্রুদিনিন। ৫৭ বছর বয়সী পাভেল একটি স্ট্রবেরি ফার্মের পরিচালক। ২০১০ সাল পর্যন্ত তিনি ইউনাইটেড রাশিয়ার ক্রেমলিন পার্টির সদস্য ছিলেন। তিনি প্রায় রাশিয়ার রাজনীতি, অর্থনীতির বিভিন্ন দিক নিয়ে সমালোচনা করে থাকেন। তবে পুতিনের সমালোচনা করা থেকে বরাবরই বিরত থাকেন পাভেল। রুশ প্রেসিডেন্ট পদের আরেক প্রতিদ্বন্দ্বি ভ্লাদিমির হিরিনভোস্কি। ৭১ বছর বয়সী হিরিনভোস্কি আল্ট্রান্যাশনালিস্ট লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির হয়ে নির্বাচন করছেন।

পুতিনের আরেক সমালোচক রিগোরি অ্যাভলিনস্কিও নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। ৬৫ বছর বয়সী এই অর্থনীতি বিশেষজ্ঞ ২০০০ সাল থেকে পুতিনের বিরুদ্ধে নির্বাচনে অংশ নিয়ে আসছেন। এ ছাড়া ফ্রিঞ্জ ন্যাশনালিস্ট পার্টি থেকে বরিস টিটোভ এবং কমিউনিস্ট রাশিয়া দল থেকে ম্যাক্সিম সুরাইকিন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এর আগে গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর দেশটির পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষে অনুষ্ঠিত ভোটাভুটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের এই তারিখ চূড়ান্ত করা হয়।