ফাইল ছবি
রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে প্রেমের বিয়ের পর লাশ হলেন এক তরুণী। মঙ্গলবার (১৩ মার্চ) দুপুরে উপজেলার হিজলগাছি গ্রামে শ্বশুরবাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে গোদাগাড়ী মডেল থানার পুলিশ।নিহতের নাম নুশরাত জাহান (২৩)। নুশরাত খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার শাহাপুর গ্রামের আক্তার শেখের মেয়ে। ওই তরুণীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী সাকিব হোসেনকে (২৮) আটক করেছে পুলিশ।
পরিবারের বরাত দিয়ে গোদাগাড়ী মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক আলতাফ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সকালে ঘুম থেকে উঠে স্ত্রীকে ঘরে রেখে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান সাকিব। পরে পরিবারের সদস্যরা ঘরে গিয়ে নুশরাতের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। নিহতের গলার বাম পাশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এলাকায় গুঞ্জন রয়েছে তাকে গলাটিপে হত্যা করা হয়েছে।

ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল মর্গে নেয়া হয়েছে। এছাড়া জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নেয়া হয়েছে স্বামী সাকিবকে।

তিনি আরও জানান, সাকিব পেশায় ট্রলিচালক। মুঠোফোনে তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে নুশরাতের। প্রায় চার মাস আগে খুলনা থেকে রাজশাহী এসে সাকিবকে বিয়ে করেন নুশরাত। এরপর থেকে শ্বশুর আরমান আলীর বাড়িতেই ছিলেন তিনি।

পরিদর্শক আলতাফ হোসেন জানান, থানায় রেখে সাকিবদকে জিজ্ঞাসাবাদ হচ্ছে। পুলিশ নুশরাতের মৃত্যুর কারণ তদন্ত করছে। নুশরাতের বাবার বাড়িতেও তার মৃত্যুর খবর দেয়া হয়েছে। তারা রাজশাহী এলে আইনত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।