‘প্রশ্নবিদ্ধ হয় এমন কিছু প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলবেন না’

0
125
print
নির্বাচন কমিশনের (ইসি) কাছে আওয়ামী লীগ নিরপেক্ষতা আসা করে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘নির্বাচন কমিশন প্রশ্নবিদ্ধ হয় এমন কিছু প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলবেন না বলে মনে করি।’
সোমবার রাজধানীতে ‘অভিবাসনের ভবিষ্যৎ বদলে দাও খাদ্য নিরাপত্তা ও গ্রামীণ উন্নয়নে বিনিয়োগ বাড়াও’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। বিশ্ব খাদ্য দিবস উপলক্ষে কৃষি মন্ত্রণালয় এ সেমিনারের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী।
উল্লেখ্য, নির্বাচনী আইন সংস্কার বিষয়ে গত রবিবার বিএনপির সঙ্গে সংলাপ করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সেই আলোচনার সূচনায় সিইসি কে এম নুরুল হুদা বলেন, ‘জিয়াউর রহমান এ দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা করেছিলেন। ১৯৯১ সালে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দেশের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হন। বিএনপি রাষ্ট্র পরিচালনার কাজে প্রকৃত নতুন ধারার প্রবর্তন করেছে।’ সোমবার সেমিনারে সাংবাদিকরা এ ব্যপারে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘প্রধান নির্বাচন কমিশনার কোন প্রেসব্রিফিং করেননি। ভেতরে (বিএনপির সঙ্গে আলোচনায়) বলেছেন। তবে আমরা নিশ্চিত হবো, আসলে তিনি কি বলেছেন। আমরাও নির্বাচন কমিশনের সাথে সংলাপে বসব। কাজেই আমরা এ বিষয়ে তার কাছে জানতে চাইব।’
তিনি বলেন, ‘এটা বিএনপিকে নির্বাচনে নিয়ে আসার কৌশল হতে পারে। সংলাপের পর নির্বাচনে আসার ব্যাপারে বিএনপির খুশি খুশি ভাব। বিএনপির মহাসচিবের মুখও দেখলাম খুশি খুশি। এটা যেন নির্বাচন পর্যন্ত থাকে।’
কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘রোহিঙ্গা সমস্যা আমাদের উপর একটা বিরাট চাপ সৃষ্টি করেছে। তাদের উপর নির্যাতনের কারণে, মৃত্যুর ধ্বংস লীলা চালানোর কারণে তারা বাংলাদেশে এসেছে। ‘অভিবাসন’ শব্দটা তাদের সাথে যুক্ত করতে চাই না। দুর্যোগ কমলে রোহিঙ্গারা চলে যাবেন।’
কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘মিয়ানমার কিন্তু এখন আর জোরগলায় কথা বলতে পারছে না। এটা আমাদের কূটনৈতিক সাফল্য। রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে বাংলাদেশ মাথা নত করবে না বলে তিনি জানান।’

LEAVE A REPLY