ছবি-প্রতীকী
মা, মা বলে কাঁদছে শিশু! অপরদিকে পরকীয়া প্রেমে আনন্দে আত্মহারা হয়ে মা নাছরিন বেগম (২১) পালিয়ে গেছে। গত মঙ্গলবার রাতে কোলের শিশুকে ঘুমিয়ে রেখে দেবরের সাথে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় গত বুধবার থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। উপজেলার জয়ন্তীপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। অভিযোগ ও এলাকাবাসীর সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার টুকুরিয়া ইউনিয়নের জয়ন্তীপুরের ইলেকট্রিক্যাল পার্টস ব্যবসায়ী আল আমিন মিয়া (২৯) ৪ বছর পূর্বে পার্শ্ববর্তী গোপীনাথপুরের কছিম উদ্দিনের মেয়ে নাছরিন বেগমকে বিয়ে করে। তার সংসারে নাফিজ হাসান নুর নামের ৩ বছরের একমাত্র ছেলেও রয়েছে। নাছরিন তার আপন চাচাতো দেবর সাবু মিয়ার সাথে প্রায় ২ বছর ধরে পরকীয়ার সূত্রে নানান অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে একাধিকবার হাতেনাতে ধরাও পড়ে।
এ নিয়ে গত সোমবার রাতে জয়ন্তীপুরে গ্রামবাসী এক সালিস বৈঠকে উভয়েই পরকীয়ার ঘটনা স্বীকার করে এবং পরবর্তীতে এমন ঘটনা ঘটবে না মর্মে তারা শপথ করে। কিন্তু পরদিনই রাত ৮ টার দিকে নাছরিন তার কোলের শিশু ছেলেকে ঘুমিয়ে রেখে নগদ টাকা, কাপড়চোপড় ও স্বর্ণালংকার নিয়ে দেবর সাবুর সাথে পালিয়ে গেছে। এ ঘটনায় আল-আমিন গত বুধবার থানায় অভিযোগ করেছেন। আল আমিন জানায়, একমাত্র ছোট ছেলেটার জন্য ওর (স্ত্রী) অনেক অপরাধ মেনে নিয়েছিলাম। কিন্তু এখন সহ্য করতে না পেরে অভিযোগ করলাম। কষ্ট হচ্ছে, ছেলেটা মা, মা বলে খুব কান্নাকাটি করছে, ওকে থামানো যাচ্ছে না। ওসি রেজাউল করিম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।