পারিবারিক কারণ দেখিয়ে পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জন কি। এর ফলে দীর্ঘ আট বছরের শাসন ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়াতে যাচ্ছেন তিনি। জন কি বলেন, এটা আমার জন্য এযাবত কালের সবচেয়ে কঠিন সিদ্ধান্ত। জানি না ভবিষ্যতে আমি কী করবো।

তার এ সিদ্ধান্তের কথা এরই মধ্যে ক্যাবিনেটকে জানিয়েছেন।

স্থানীয় সময় আজ সোমবার বেলা পৌনে একটায় সংবাদ সম্মেলন ডেকেছেন জন কি। আগামী ১২ ডিসেম্বর থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে এবং এ সময়ের মধ্যে জাতীয় নেতারা জরুরি বৈঠকে বসে নতুন নেতৃত্ব ঠিক করবেন।

জন কি বলেন, ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী বিল ইংলিশকে নতুন দায়িত্ব দেওয়ার বিষয়ে আমি ভোট দেব এবং তার নামই সুপারিশ করবো।

২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরের নির্বাচনে জয়ের পর ন্যাশনাল পার্টির সরকারে তৃতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হন জন কি। ২০১৭ সালে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে তিনি অংশ নেবেন না বলে জানিয়েছেন।