নক-আউট পর্বের শুরুতেই থাকছে চমক

    রাশিয়া বিশ্বকাপের প্রথমপর্ব থেকেই চমকের পর চমক দেখলো বিশ্ব। এবার ছোট-বড় ভেদাভেদ নেই। কালো আর সাদা মিলেমিশে একাকার। আজই গ্রুপপর্বের সমাপনী ম্যাচের মধ্যদিয়ে চূড়ান্ত হয়ে যাবে ৩২ দলের শেষ ষোলোতে কারা কারা। ইতোমধ্যেই উরুগুয়ে, রাশিয়া, পর্তুগাল, স্পেন, ফ্রান্স, ডেনমার্ক, ক্রোয়েশিয়া, আর্জেন্টিনা, মেক্সিকো, বেলজিয়াম ও ইংল্যান্ড নিশ্চিত করেছে দ্বিতীয় পর্ব। আজ রাতেই ফাইনাল হয়ে যাবে বাকি পাঁচ দলের নাম। এবারের বিশ্বকাপে সেরা তিন দল জার্মানি, ব্রাজিল, সুইডেনসহ সুইজারল্যান্ড, সার্বিয়া, জাপান, সেনেগাল ও কলাম্বিয়ার ভাগ্য ঝুলে আছে। এবার বিশ্বকাপের চমক বড় দলগুলোর টিকে থাকার লড়াই। প্রথমপর্ব থেকেই মেসি, রোনালদো, নেইমার, টমাস মুলার, জেমস রদ্রেগিজ, ওজিল, পাওয়েল পগবা, রামোস, মোহামেদ সালাহ আর ইনেস্তেয়ার মতো সুপার স্টাররা তাদের নামের প্রতি সুবিচার করতে এখনো পারেননি। প্রথমপর্বেই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানি ও আর্জেন্টিনার পরাজয় বড় অঘটন। পেনাল্টি থেকে গোল পাননি লিওনেল মেসি, রোনালদোরা! অতএব চমকের শেষ ছিল না শুরু থেকেই। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, এবার হয়তো দ্বিতীয়পর্বেই বিদায় নিতে হতে পারে টপ ফেবারিট দলগুলোকে। এদিকে, একদিন বিরতি থাকার পর ৩০ জুন থেকে শুরু হবে নক-আউট পর্বের খেলা। এবার দ্বিতীয়পর্ব থেকেই নতুন রঙে সাজতে যাচ্ছে রাশিয়া বিশ্বকাপ। গ্রুপপর্বের খেলাগুলো প্রায় শেষের দিকে চলে এসেছে। নকআউট রাউন্ডের শুরু থেকেই থাকছে এবার চমক। নকআউট রাউন্ডকে কেন্দ্র করেই নতুন উদ্যোগ নিয়েছে বিশ্বকাপের বল সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান এডিডাস। গ্রুপপর্বের সেই বল দিয়ে নয়, নতুন রঙের বল দিয়েই হবে নক-আউট পর্বের সব ম্যাচ। গ্রুপপর্বের ম্যাচগুলোতে সাদা-কালো রঙের টেলস্টার বলে খেলা হলেও গতকাল এডিডাস সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে নক-আউট পর্বের বলের উদ্বোধন করে। এই বলের ভিন্নতা শুধু রঙে। কালোর বদলে উজ্জ্বল লাল-সাদা বলে খেলা হবে দ্বিতীয় রাউন্ড। আর এই বলের নাম দেওয়া হয়েছে ‘টেলস্টার মেছতা’। তবে গ্রুপপর্বের পর বল পরিবর্তন এই প্রথম না। এর আগে ২০১০ দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপের ফাইনালেও ভিন্ন বলে খেলা হয়েছিল।