নকল অস্ত্র দেখিয়ে লিবিয়ার বিমান ছিনতাই!

0
303
print
লিবিয়ার অভ্যন্তরীণ রুটের একটি বিমান গতকাল শুক্রবার অস্ত্রের মুখে ছিনতাই করে মাল্টায় নিয়ে যায় দুই যাত্রী। তবে ওই অস্ত্রগুলো নকল (রেপ্লিকা) ছিল বলে প্রাথমিক ফরেনসিক পরীক্ষায় জানা গেছে।

মাল্টার প্রধানমন্ত্রী জোসেফ মাসকাট টুইটার বার্তায় এমন তথ্য জানিয়েছেন।

‘গ্রেনেড এবং পিস্তল’ দেখিয়ে ওই ছিনতাইকারীরা বিমানটিকে ত্রিপোলির পরিবর্তে মাল্টায় অবতরণে বাধ্য করে। পরে দুই ছিনতাইকারী আত্মসমর্পণ করলে ছিনতাই ও জিম্মি সংকটের শান্তিপূর্ণ অবসান হয়।

লিবিয়ার রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন আফ্রিকিয়াহ এয়ারওয়েজের এয়ারবাস-এ৩২০ বিমানটিতে ২৮ জন নারী এবং এক শিশুসহ ১১৮ জন যাত্রী ও ক্রু ছিলেন।

শুক্রবার লিবিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সাবহা শহর থেকে অভ্যন্তরীণ রুটের বিমানটি রাজধানী ত্রিপোলি যাচ্ছিল।

ছিনতাইকারীদের একজন নিজেকে লিবিয়ার নিহত নেতা মুয়াম্মার গাদ্দাফির সমর্থক একটি দলের প্রধান বলে দাবি করেন। ছিনতাইকৃত বিমানের ফটকে দাঁড়িয়ে তাকে গাদ্দাফির সময়কার লিবিয়ার জাতীয় পতাকা দোলাতে দেখা যায়।

মুসা শাহা পরিচয় দিয়ে লিবিয়ার চ্যানেল টিভি-কে তিনি বলেন, তিনি আল-ফাতেহ আল-জাদীদ তথা দ্য নিউ আল-ফাতেহ দলের প্রধান। গাদ্দাফি ১৯৬৯ সালে আল-ফাতেহ নাম দিয়ে সেনা অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করেন।

বিমানের যাত্রীদের একজনের সঙ্গে একজন লিবীয় আইনজীবী কথা বলে জানতে পারেন, দুই ছিনতাইকারী গাদ্দাফি সমর্থক পার্টি গঠনের দাবি জানান।

LEAVE A REPLY