ধর্ষণ মামলায় শিবগঞ্জের ৩ জনের যাবজ্জীবন

0
87

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে ১৪ বছরের এক কিশোরীকে অপহরণের পর ধর্ষণ ও ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে ৩ জনকে যাবজ্জীবন কারদণ্ড দিয়েছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল কোর্ট। বুধবার দুপুরে বিচারক অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোঃ জিয়াউর রহমান রায় প্রদান করেন এবং প্রত্যেকে এক লাখ টাকা জরিমান করেন। অনাদায়ে আরো ৩ বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ডের নির্দেশ দেন। জরিমানার টাকা ধর্ষিতা কিশোরী পাবে বলে রায়ে উল্লেখ করা হয়।
দন্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হচ্ছে, জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের মিছু আলীর ছেলে জিয়ারুল ইসলাম (২৮), বাটা গ্রামের এসান আলীর ছেলে নজরুল ইসলাম (৪০) ও কাশিয়া বাড়ি খাসপাড়া গ্রামের মৃত. সাজু আলীর ছেলে এজু ওরফে নজু ওরফে নজরুল (৪৯)। মামলার বিবরণ ও অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট আঞ্জুমান আরা জানান, ২০১৩ সালের ২০ আগষ্ট শিবগঞ্জের চন্ডিপুর গ্রামের মাজহারুল ইসলামের কিশোরী কন্যা পাশের কাশিয়াবাড়ি গ্রামে খালুর বাড়ীতে বেড়াতে গেলে ঘুমন্ত অবস্থায় আসামীরা প্রথমে অপহরন করে ও গড়পাড়ার একটি বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে এবং ধর্ষনের পর পার্শবর্তী আম বাগানে হাত পা বেঁধে ফেলে পালিয়ে যায়। পরের দিন স্থানীয়রা তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ব্যাপারে ধর্ষিতা কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে শিবগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করে। (মামলা নং- ৫৬, শিবগঞ্জ থানা, তাং-২৫-০৮-১৩, জি.আর. নং ৩৫৭/২০১৩, নারী ও শিশু মামলা নং ৩০/২০১৩)। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শিবগঞ্জ থানার এস.আই. আবুল কালাম আজাদ একই সালের ২১ নভেম্বর ২ জন আসামীকে অব্যাহতি দিয়ে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ৭ জনের সাক্ষ্য প্রমানে এ তিন জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়। আসামী পক্ষেও আইনজীবি ছিলেন আ্যাড. নুরুল ইসলাম সেন্টু।

LEAVE A REPLY