ধর্ষক শ্বশুর খুন: স্বামীসহ গৃহবধূর আত্মসমর্পণ

পরপর দুই দিন পুত্রবধূকে ধর্ষণ করেন শ্বশুর। আর এই ধর্ষক শ্বশুরকে হত্যা করে স্বামীসহ আত্মসমর্পণ করেন ওই গৃহবধূ। শুক্রবার ভারতের উত্তরপ্রদেশের মাধোটান্ডা থানার একটি গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। রোববার ওই দম্পতির বিরুদ্ধে থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করেন মৃতের বড় ছেলে।
জানা গেছে, পুত্রবধূকে পরপর দুই দিন ধর্ষণ করেন শ্বশুর। নির্যাতিতা গৃহবধূ বিষয়টি স্বামীকে অবহিত করেন। তিনি স্বামীকে সঙ্গে নিয়েই ধর্ষক শ্বশুরের উপর চড়াও হন। লাঠি দিয়ে অনবরত মারতে থাকায় ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় শ্বশুরের। ঘটনার পরদিন সকালে স্থানীয় মাধোটান্ডা থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেন ওই দম্পতি।

নির্যাতিতা গৃহবধূ জবানবন্দিতে জানান, পরপর দুদিন তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। প্রথমদিন ঘটনার সময় তার স্বামী মাঠে কাজ করছিলেন। ঘরে একা পেয়ে তার উপরে শারীরিক নির্যাতন চালান শ্বশুর। পরেরদিন রাতে ঘরে ঘুমিয়েছিলেন তিনি। বারান্দায় ঘুমাচ্ছিলেন তার স্বামী। এ সময় ঘরে ঢুকে আবারও তাকে ধর্ষণ করেন শ্বশুর। স্ত্রীর চিৎকারে ঘুম ভেঙে যায় স্বামীর। ঘরে ঢুকে অশালীন দৃশ্য দেখতে পান। এরপর শ্বশুরকে মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত নেন ওই গৃহবধূ। স্বামী হত্যাকাণ্ডে তাকে সহযোগিতা করেন।

সূত্র: জি-নিউজ