‘দেশের মানুষ জাতীয় পার্টিকে আবারো ক্ষমতায় দেখতে চায়’

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, দেশের মানুষ শান্তিতে নাই। মাদকে সব আচ্ছন্ন করে ফেলেছে। মানুষ এখন পরিবর্তন চায়, সুশাসন দেখতে চায়। এক মাত্র জাতীয় পার্টিই সুশাসন দিতে পারে। দেশের মানুষ আবারো জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় দেখতে চায়।
রোববার (১০ জুন) দুপুরে কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলা স্টেডিয়াম মাঠে উপজেলা জাতীয় পার্টি আয়োজিত জনসভায় একথা বলেন জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। এসময় তিনি কুড়িগ্রাম-৩ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রাথী হিসেবে সনিক প্রাইম গ্রুপের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডাঃ আক্কাস আলীকে পরিচয় করিয়ে দেন।

তিনি আরও বলেন, আমার জন্ম কুড়িগ্রামে। আমি চিলমারী, উলিপুর উপজেলা করেছি। আমার মতো উন্নয়ন আর কেউ করে নাই। গ্রামে-গঞ্জে উন্নয়ন পৌঁছে দিয়েছি। এ দেশের মানুষ এখন জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় দেখতে চায়।

এরশাদ বলেন, ‘দেশে অবাধ ও সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে কেউ জাতীয় পার্টিকে রাষ্ট্রক্ষমতায় যেতে আটকাতে পারবে না। আর যদি শুধু সিল মারার নির্বাচন হয় তাহলে আমরা ক্ষমতায় যেতে পারবো না।’

সরকারকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘জাতীয় পার্টিকে অবহেলা করবেন না। জাপাকে সম্মান দেন। কারণ জাতীয় পার্টির ছাড়া কেউ ক্ষমতায় যেতে পারবে না।’ দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে জাপা চেয়ারম্যান বলেন, ‘আগামী নির্বাচন আমাদের বাঁচা-মরার নির্বাচন। ভুল করলে চলবে না। যে প্রার্থী দেব তাকে জয়লাভ করাতে হবে।’

তিনি বলেন, আগামীতে জাতীয় পার্টি সরকার গঠন করলে বাংলাদেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠা হবে। তাই শুধু উপ-নির্বাচনে নয়, আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থীকে ভোট দেবেন। আপনারা আমার সঙ্গে ছিলেন জন্যই আমি জেল থেকে মুক্তি পেয়েছি। উলিপুরের মানুষের কাছে আমি ঋণী।

জনসভায় সনিক প্রাইম গ্রুপের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অধ্যাপক ডা. আক্কাছ আলী সরকারকে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে পরিচয় করিয়ে দিয়ে এরশাদ আরও বলেন, আক্কাছ আলী সরকার ভালো মানুষ, তাকে ভোট দিয়ে জয়ী করবেন। উলিপুরের উন্নয়ন করে উনি আপনাদের সেবা করতে পারবেন।

উলিপুর উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আতিয়ার রহমান মুন্সির সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন-পার্টির কো-চেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রী জি এম কাদের, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, পল্লি উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা এমপি, বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ তাজুল ইসলাম চৌধুরী এমপি, জিয়াউদ্দিন বাবলু এমপি, রংপুর সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, রংপুর জেলা জাপা’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক।

উপজেলা জাপা’র প্রচার সম্পাদক ও হাতিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বিএম আবুল হোসেন বিএসসি’র সঞ্চালনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন-উপজেলা জাতীয় পার্টির সম্পাদক নুরুজ্জামান সরকার, কেন্দ্রীয় নেতা আবু তাহের খায়রুল হক এটি, প্রকৌশলী আনিচুর রহমান রতনসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতারা।