প্রয়াত জনপ্রিয় লেখক শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের কালজয়ী উপন্যাস ‘দেবদাস’-এর গল্পে অনুপ্রাণিত হয়ে জাকারিয়া শৌখিন নির্মাণ করতে যাচ্ছেন ‘জলসা ঘর’ শিরোনামের একটি টেলিফিল্ম। এতে দেবদাস, পার্বতী ও চন্দ্রমুখী চরিত্রে অভিনয় করবেন জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, মেহজাবিন চৌধুরী ও জাকিয়া বারী মম। জাকারিয়া শৌখিন জানান, চরিত্র ঠিকই থাকবে কিন্তু নাম পরিবর্তন করা হবে। তিনি বলেন, ‘শরৎচন্দ্রের দেবদাসে অনুপ্রাণিত হয়ে আমি জলসা ঘরের কাহিনী রচনা করেছি বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে। যে কারণে চরিত্রের নাম পরিবর্তন করা হচ্ছে। দর্শকের কাছে অনুরোধ থাকবে কোনোভাবেই আমার জলসা ঘরকে দেবদাসের সাথে যেন না মিলিয়ে ফেলেন। শরৎচন্দ্রের দেবদাসের সাথে আমার জলসা ঘরকে মেলানো ঠিক হবে না। তবে এটাও সত্য যে, দেবদাসে অনুপ্রাণিত হয়েই আমি এটি রচনা করেছি। আমার ভাবনায় যেসব শিল্পী এসেছেন, তাদের নিয়েই আমি কাজ করতে যাচ্ছি।’ কেনো নামকরণ জলসা ঘর দিয়েছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে শৌখিন আরো বলেন, ‘দেবদাসের জীবন হচ্ছে জলসা ঘরের মতোই। ক্ষণিকের আনন্দ, পরক্ষণেই আবার বেদনা ভর করে তার জীবনে। তাই তার জীবনকে প্রাধান্য দিয়ে নামকরণ করেছি জলসা ঘর।’ শৌখিন জানান, শিগগিরই ‘জলসা ঘর’র শুটিং হবে। অপূর্ব, মম এবং মেহজাবিন ধাপে ধাপে এই টেলিফিল্মের কাজে অংশ নিবেন বলে জানিয়েছেন নির্মাতা। ‘জলসা ঘর’ নির্মিত হবে স্যাটেলাইট চ্যানেল বাংলাভিশনের নিজস্ব প্রযোজনায়। আগামী ঈদে বাংলাভিশনেই এটি প্রচার হবে। উল্লেখ্য, বাংলাদেশে বিভিন্ন সময়ে শরৎচন্দ্রের ‘দেবদাস’ নিয়ে চলচ্চিত্র এবং বেটা ফরম্যাটে চলচ্চিত্র নির্মিত হয়েছিলো। এদেশে ‘দেবদাস’ নামক দুটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছিলেন প্রয়াত চাষী নজরুল ইসলাম এবং বেটা ফরম্যাটে চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছিলেন শহিদুল ইসলাম মিন্টু। দুটি চলচ্চিত্রে এবং টেলিফিল্মে দেবদাস, পার্বতী ও চন্দ্রমুখীর চরিত্রে বিভিন্ন সময়ে অভিনয় করেছিলেন বুলবুল আহমেদ, কবরী ও আনোয়ারা, শাকিব খান, অপু বিশ্বাস ও মৌসুমী এবং মাহফুজ আহমেদ, তারিন ও তানিয়া আহমেদ।