টাঙ্গাইল উপ-নির্বাচন আ’লীগের প্রার্থীর বিজয়

0
280
print
  • টাঙ্গাইল-৪ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হাসান ইমাম খান সোহেল হাজারী (নৌকা) নিরঙ্কুশ জয়লাভ করেছেন। বেসরকারি ফলাফলে তিনি পান ১ লাখ ৯৩ হাজার ৫৪৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রাথী ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) প্রার্থী ইমরুল কায়েস (আম) পান ১ হাজার ৬৯৬ ভোট। এছাড়া বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ) প্রার্থী আতাউর রহমান খান (টেলিভিশন) পেয়েছেন ১ হাজার ৩২০ ভোট।

উপ-নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম মঙ্গলবার সন্ধ্যায়  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নির্বাচনে ৬৪ দশমিক ৩৪ শতাংশ ভোট পড়েছে।

এরআগে সকাল ৮টা থেকে একটানা বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলে। তবে কেন্দ্রে ভোটারের উপস্থিতি ছিল একেবারেই কম। কেন্দ্রের ভেতরে-বাইরে কোথাও লোকজনের তেমন ভীড় লক্ষ করা যায়নি। অনিয়মের অভিযোগে বল্লভবাড়ি ভোটকেন্দ্র স্থগিত করা হয়েছে। একই সাথে ওই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মাধব চন্দ্র দাসকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া আর কোথাও তেমন কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

এদিকে এনপিপি-এর মনোনীত প্রার্থী ইমরুল কায়েস (আম) বিকেল ৩টার দিকে জেলা নির্বাচন অফিসে হাজির হয়ে নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে ভোট বর্জন করেন। তিনি জানান, তার সামনে বিভিন্ন কেন্দ্রে জালভোট দেওয়া হয়েছে। এজন্য তিনি নির্বাচন বর্জন করেছেন।

এই আসনের মোট ভোটার ৩ লাখ ৭ হাজার ৭০০ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৫২ হাজার ৮৩৩ ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ৫৪ হাজার ৮৬৭। মোট ভোটকেন্দ্র ১০৭টি, মোট ভোটকক্ষ ছিল ৬৬১টি। এছাড়া প্রিজাইডিং অফিসার ১০৭ জন, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ৬৬১ জন ও পোলিং অফিসার ১৩২২ জন দায়িত্ব পালন করেন।

LEAVE A REPLY